সফর স্মরণীয় করাতে নানা উদ্যোগ : দিল্লির মৌর্য হোটেলে থাকবেন ডোনাল্ড ট্রাম্প

 

ভিনিউজ –

আগামী সোমবার দুই দিনের সফরে ভারতে আসছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। ভারত সফরে আমেদাবাদ, আগ্রা ও দিল্লিতে যাবেন ট্রাম্প। মার্কিন প্রেসিডেন্টের সফর স্মরণীয় করে রাখতে কোনও চেষ্টারই খামতি রাখতে না সরকার। সেজন্য সুরক্ষা, থাকা ও খাওয়া-দাওয়ার মতো ক্ষেত্রে ট্রাম্পের রুচির কথা মাথায় রাখা হয়েছে। আমেদাবাদ ও তাজমহল সফরের পর দিল্লিতে ট্রাম্পের থাকা স্মরণীয় করার উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। প্রাক্তন মার্কিন প্রেসিডেন্টদের মতো ট্রাম্পও দিল্লিতে আইটিসি মৌর্য হোটেলে থাকবেন। এই পাঁচতারা হোটেল দারুণ আকর্ষণীয়।
আমেদাবাদ ও তাজমহল সফরের পর ট্রাম্প সপরিবারে দিল্লিতে এসে থাকবেন। মার্কিন রাষ্ট্রপতির রাত্রিবাসের জন্য মৌর্য হোটেলের প্রেসিডেন্সিয়াল ফ্লোরে চাণক্য স্যুইট বুক করা হয়েছে। জানা গেছে, চাণক্য স্যুইটে একটি রাত থাকার ভাড়া ৮ লক্ষ টাকা। চাণক্যপুরীতে ৪৬০০ বর্গফুট জায়গা ঘিরে গড়ে উঠেছে চাণক্য স্যুইট। এতে রয়েছে বিশেষ দরজা, দ্রুতগতির এলিভেটর ও অতিথিদের সুরক্ষার জন্য অত্যাধুনিক কন্ট্রোল রুম। জানালার কাঁচ বুলেট প্রুফ। স্যুইটে রয়েছে দুটি রুম এবং একটি বড় লিভিং রুম, ১২ সিটার ডাইনিং রুমের সঙ্গে ছোট স্পা অন্যতম আকর্ষণ। প্রেসিডেন্সিয়াল স্যুইটে শিল্পপতিদের সঙ্গে বৈঠক করার বিশেষ ব্যবস্থাও রয়েছে।ঐতিহ্য তুলে ধরতে স্যুইটের দেওয়ালে রয়েছে তায়েব মেহতার আঁকা ছবি।
হোটেলে চেক-ইন করার পর ট্রাম্প পরিবারকে ভারতীয় প্রথায় স্বাগত জানানো হবে। ভেতরে প্রবেশের পর তাঁকে দেওয়া হবে ফুল দিয়ে তৈরি রঙ্গোলি।
আমেরিকার প্রেসিডেন্টের পরিবারের জন্য থাকছে খাওয়ার-দাওয়ার বিশেষ ব্যবস্থা। হোটেলে যে জায়গায় ট্রাম্প ভোজ সারবেন তার নাম বুখারা রেস্তোঁরা। মেনুতে কী থাকছে, সে ব্যাপারে অবশ্য বিশেষ কোনও তথ্য জানা যায়নি। তবে মনে করা হচ্ছে, প্রেসিডেন্টের খাবারের জন্য একটি বিশেষ প্লেটে থাকছে ভারতীয় মিষ্টি। এর আগে প্রাক্তন মার্কিন প্রেসিডেন্ট বিল ক্লিন্টন ও বারাক ওবামার সফরের সময়ও বিশেষ প্লেট আকর্ষণের কেন্দ্রে ছিল। সেইসঙ্গে ডোনাল্ড ট্রাম্পের রুচি অনুয়ায়ী খাওয়া-দাওয়ার ব্যবস্থার কথা মাথায় রাখা হয়েছে।
এই হোটেলে এর আগে কিং আবদুল্লা, ভ্লাদিমির পুতিন, ব্রুনেইয়ের সুলতান, টনি ব্লেয়ারের মতো নেতারা এই হোটেলে রাত্রিবাস করেছেন। জানা গেছে, ট্রাম্প ও মার্কিন ফার্স্ট লেডিকে স্বাগত জানানোর প্রস্তুতি চূড়ান্ত পর্যায়ে।
– এপিবি আনন্দ