শারীরিক জটিলতা কাটছে না খালেদা জিয়ার

59
Social Share

রাজধানীর এভার কেয়ার হাসপাতালে চিকিৎসাধীন বেগম খালেদা জিয়ার শারীরিক জটিলতা কাটছে না। ঝুঁকিতেই রয়েছেন তিনি। তার শারীরিক অবস্থা উঠানামা করছে। বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত বিএনপি চেয়ারপারসনের একটি সমস্যার একটু উন্নতি হলে- পরদিন আবার আরেকটি সমস্যা বেড়ে যাচ্ছে। কিডনি সমস্যাটা একটু কমলেও আবার হার্টের সমস্যা কিছুটা বেড়েছে। তবে দু’দিন ধরে তরল খাবার খেতে পারছেন বলে সংশ্লিষ্ট চিকিৎসক সূত্রে জানা গেছে।

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরও এই ঝুঁকির কথা স্বীকার করেছেন। তিনি বলেছেন, ধীরে ধীরে বেগম খালেদা জিয়ার শারীরিক অবস্থার কিছুটা উন্নতি হলেও ঝুঁকি এখনো কাটেনি।

মেডিকেল বোর্ডের একজন সদস্য জানান, করোনা ভাইরাস সংক্রমণমুক্ত হলেও তার পুরনো রোগ আর্থারাইটিস, ডায়াবেটিসের পাশাপাশি হৃদযন্ত্র জটিলতাও রয়েছে। সাবেক এই প্রধানমন্ত্রীর পোস্ট কোভিড নানা রোগের বিষয়ে চিকিৎসকরা প্রতিক্ষণেই নিবিড় পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে ব্যবস্থা নিচ্ছেন। তবে জেলে থাকা অবস্থায় অনেক রোগের যথাযথ চিকিৎসা না হওয়ায় সেসব রোগ আরো জটিল আকার ধারণ করায় সেগুলোর জন্য দীর্ঘমেয়াদী চিকিৎসা নিতে হবে।

হাসপাতালের সিসিইউতে রেখেই তাকে করোনা পরবর্তী জটিলতার চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। প্রতিদিন অন্তত একবার করে হলেও বৈঠকে বসে খালেদা জিয়ার সর্বশেষ শারীরিক অবস্থা পর্যালোচনা করছেন প্রফেসর ডা. শাহাবুদ্দিন তালুকদারের নেতৃতে গঠিত্ব ১০ সদস্যের  মেডিকেল বোর্ড। সংশ্লিষ্ট মেডিকেল বোর্ডের একাধিক চিকিৎসক সূত্রে এসব তথ্য জানা গেছে।

গত ১১ এপ্রিল করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হন বেগম খালেদা জিয়া। ২৭ এপ্রিল তাকে রাজধানীর এভার কেয়ার হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। শ্বাসকষ্ট দেখা দিলে গত ৩ মে তাঁকে একই হাসপাতালের সিসিইউতে নেয়া হয়। সেখানে তিনি অধ্যাপক ডা. শাহাবুদ্দিনের নেতৃত্বে গঠিত ১০ সদস্যের মেডিকেল টীমের তত্ত্বাবধানে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।