যুক্তরাজ্যে লাখ লাখ ক্ষুদ্র ব্যবসা বন্ধের শঙ্কা

18
Social Share

ডেস্ক রিপোর্ট: চলতি বছর যুক্তরাজ্যে বিপুলসংখ্যক ক্ষুদ্র ব্যবসা বন্ধের আশঙ্কার কথা জানিয়েছে দেশটির ছোট ও মাঝারি উদ্যোক্তাদের ব্যবসায়িক সংগঠন ফেডারেশন অব স্মল বিজনেস (এফএসবি)।

সম্প্রতি এক হাজার ৪০০ প্রতিষ্ঠানের ওপর জরিপ চালিয়ে এই শঙ্কার কথা জানিয়েছে সংস্থাটি। যেখানে সরকারের সহযোগিতা না পেলে ৫ শতাংশ প্রতিষ্ঠানই চলতি বছরের কোনো না কোনো সময় বন্ধ হয়ে যাবে বলে জানিয়েছে। সেই হিসাবে দেশটির আড়াই লাখের বেশি ছোট ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বন্ধ হয়ে যাবে। বর্তমানে দেশটিতে প্রায় ৬০ লাখ ক্ষুদ্র ব্যবসা কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছে।

সংস্থাটি বলছে, করোনাকালীন সংকট কাটিয়ে উঠতে সরকারের সহযোগিতা আর বাড়ানো না হলে আড়াই লাখ ক্ষুদ্র ব্যবসা প্রতিষ্ঠান হয়ে যাবে। ব্যবসা প্রতিষ্ঠানগুলো বন্ধের হাত থেকে রক্ষা করতে ব্যবসায়িক এই সংস্থাটি কিছু পরামর্শ দিয়েছে যা সরকারের নীতিনির্ধারণী পর্যায় আমলে নেবে বলে মনে করছে এফএসবি।

তাদের দেওয়া একটি ভালো পরামর্শ হলো: যারা এখনও সরকারের সহযোগিতার বাইরে রয়েছেন অথচ কাজেকর্মে স্বয়ংসম্পূর্ণ তাদের সহায়তার অন্তর্ভুক্ত করা হোক।

এফএসবির জাতীয় চেয়ারম্যান মাইক চেরি বলেন, দেশটিতে করোনার সংক্রমণ রোধে যে মাত্রা বিধিনিষেধ আরোপ করা হচ্ছে সেই তুলনায় উন্নয়ন সচল রাখার পদক্ষেপ নেওয়া হচ্ছে না। আর এ কারণে এ বছর আমরা শত শত হাজার হাজার প্রতিশ্রুতিশীল ও টেকসই ছোট ছোঠ ব্যবসা প্রতিষ্ঠান হারাতে যাচ্ছি।

এ জন্য এফএসবি সাড়ে সাত হাজার পাউন্ড ডলারের একটি প্যাকেজ ঘোষণার প্রস্তাবি দিয়েছে। যেখানে ক্ষুদ্র ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠানের পরিচালক যারা ক্ষতির মুখে রয়েছেন তাদের অর্থ সহায়তা দেওয়া হবে এবং এই অর্থ বরাদ্দের একটা সীমাও টেনে দিয়েছে সংস্থাটি। যেসব প্রতিষ্ঠানের বাৎসরিক আয় ৫০ হাজার পাউন্ডের কম শুধু তাদের এই সুবিধার জন্য বিবেচনা করা যেতে পারে।

দেশটির লাখ লাখ ক্ষুদ্র ব্যবসা প্রতিষ্ঠানকে সচল রাখতে সহায়ক- এমন অনেক প্রস্তাব দেশটি অর্থ বিভাগে জমা দেওয়া হয়েছে এবং সংস্থাটি আশা করছে চলতি মাসেই এ ব্যাপারে ব্যবসায়ীদের সঙ্গে সরকারের আলোচনা হবে।