লকডাউন বাড়ছে, দেশের স্বার্থেই সিদ্ধান্ত মানতে হবে: মোদী

Social Share

নয়াদিল্লি: শনিবার প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সাথে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে বৈঠকে বসেন দেশের সকল রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীরা। সেই বৈঠকে মুখ্যমন্ত্রীরা দাবি জানান, দেশজুড়ে লকডাউন ৩০ এপ্রিল অবধি বাড়িয়ে দেওয়ার। কেন্দ্র ও রাজ্য সহমতে আসায় দেশজুড়ে লকডাউন বাড়ানোর বিষয়টা অনেকটাই পরিষ্কার হয়ে গেল। পশ্চিমবঙ্গেও মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ও লকডাউন বাড়ানোর দাবি জানান।

এ দিন বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী বলেন, আমি বলেছিলাম জনতা বাঁচলেই দেশ বাঁচবে। আমি প্রতিরোধের শুরুতেই দেশকে বলেছিলাম প্রত্যেক নাগরিকের দজীবন বাঁচাতে হবে। করোনা মোকাবিলায় সামাজিক দূরত্ব অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। দেশের বেশির ভাগ মানুষই আমার কথা শুনে বাইরে না বের হয়ে বাড়িতেই ছিলেন। তারা নিজেদের কর্তব্য পালন করেছেন। এই মন্ত্রেই সবাই অন্যের জীবন বাঁচাতে কর্তব্যপালনে ব্রতী হয়েছেন।

প্রধানমন্ত্রী আরও বলেন, আমাদের ভবিষ্যতের জন্যে এবং আমাদের স্বাস্থ্যের জন্যে দেশবাসীকে প্রশাসনিক সিদ্ধান্তকে মেনে নিতেই হবে। প্রসঙ্গত জানিয়ে রাখি, রবিবার জাতির উদ্দেশ্যে ভাষণ দেবেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। তার আগে নমোর এই বক্তব্যে কার্যত স্পষ্ট, লকডাউন আরও দু’সপ্তাহ বাড়ানো হবে।

এদিকে, ইতিমধ্যেই লক়ডাউন ঘোষণার জন্যে প্ৰধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ দিয়েছেন দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরীওয়াল। তিনি বলেছেন, লকডাউনের সিদ্ধান্ত আগেভাগে নেওয়ার ফলেই ভারত অন্য দেশের তুলনায় করোনা যুদ্ধে অনেক এগিয়ে রয়েছে। কেন্দ্র সূত্রে খবর, ১৪ এপ্রিলের পরে আরও দু’সপ্তাহ অর্থাৎ ৩০ এপ্রিল অবধি লকডাউন বাড়ানোর প্রস্তাব বিবেচনা করা হচ্ছে।