রোহিত-রাহুলের ব্যাটে ভাঙল ৬৯ বছরের পুরানো রেকর্ড

68
Social Share

লর্ডসের ঐতিহাসিক স্টেডিয়ামে ভারতীয় ক্রিকেট দলের ৬৯ বছরের পুরনো রেকর্ড ভেঙে দিল রোহিত শর্মা এবং কেএল রাহুল জুটি। ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে লন্ডনে গতকাল বৃহস্পতিবার (১২ আগস্ট) সিরিজের দ্বিতীয় টেস্ট ম্যাচ খেলতে নামে ভারতীয় ক্রিকেট দল।

প্রথমে ব্যাট করতে নেমে রোহিত শর্মা এবং লোকেশ রাহুলের ওপেনিং জুটির দৌলতে ভারতীয় ক্রিকেট দল অনায়াসে ১০০ রান অতিক্রম করে ফেলে। ১৯৫২ সালের পর এই প্রথমবার ভারত লর্ডসের মাঠে ১০০ রানের ওপেনিং জুটি গড়ল। ভারতের শেষ দুই ব্যাটসম্যান যারা এই কৃতিত্ব অর্জন করেছিলেন তারা হলেন- বিনু মাঁকড় এবং পঙ্কজ রায়। ১৯৫২ সালে ক্রিকেটের মক্কাখ্যাত লর্ডসে তারা দুইজনে ১০৬ রানের পার্টনারশিপ গড়ে তুলেছিলেন।

তবে রোহিত এবং রাহুল জুটি এই মাইলফলক ৩৬ ওভারের মাথায় অতিক্রম করেন এবং ভারতীয় স্কোরবোর্ডে তখন ১০৬ রান জ্বলজ্বল করছে। দ্বিতীয় সেশনের ড্রিংক্স ব্রেকের আগেই এই কৃতিত্ব অর্জন করেন তারা। পাশাপাশি এই জুটি আরও একটা রেকর্ড অতিক্রম করেছেন। লর্ডসের মাঠে টস হারার পর প্রথমে ব্যাট করতে নেমে সবচেয়ে বেশি রানের ওপেনিং পার্টনারশিপ গড়ে তোলেন।

ভারতের প্রথম ইনিংসের ৪১ ওভারে রাহুল একটা দুরন্ত ছক্কা হাঁকান এবং ১১৪ রানের মাইলফলক স্পর্শ করেন। ইতিপূর্বে ইংল্যান্ডের অ্যালেস্টার কুক এবং অ্যান্ড্রু স্ট্রস ২০০৮ সালে দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে ১১৪ রান করেছিলেন। লর্ডসের ২২ গজে কোনও দল হিসেবে টস হারার পর প্রথমে ব্যাট করতে নেমে এটাই ওপেনিং পার্টনারশিপে সবথেকে বেশি রান ছিল।

উদ্বোধনী জুটিতে রোহিত শর্মা ও লোকেশ রাহুল ১২৬ রান তোলেন। সেঞ্চুরির পথে এগিয়ে যাচ্ছিলেন রোহিত। কিন্তু জেমস অ্যান্ডারসনের বল তার প্যাড ছুঁয়ে ট্যাম্পের মাথায় লাগে। অবশ্য ট্যাম্পে না লাগলেও এলবিডব্লিউ হতেন তিনি। সেঞ্চুরি থেকে ১৭ রান দূরে থাকতে সাজঘরে ফেরেন তিনি। ১৪৫ বল খেলে ১১ চার ও ১ ছক্কায় ৮৩ রান করে যান রোহিত।

১৫০ রানের মাথায় দ্বিতীয় উইকেট হারায় ভারত। এসময় অ্যান্ডারসনের দ্বিতীয় শিকারে পরিণত হন চেতেশ্বর পূজারা (৯)। এজ হয়ে থার্ড স্লিপে জনি বেয়ারস্টোর তালুবন্দি হন তিনি। এরপর কোহলি ও রাহুল মিলে ভারতকে টানতে থাকেন। তৃতীয় উইকেটে তারা ১১৭ রানের জুটি গড়েন। এ যাত্রায় লোকেশ রাহুল তার ক্যারিয়ারের সপ্তম সেঞ্চুরি তুলে নেন ২১২ বলে ৯টি চার ও ১ ছক্কায়।

দিনের শেষ দিকে ২৬৭ রানের মাথায় অলি রবিনসনের বলে প্রথম স্লিপে জো রুটের হাতে ধরা পড়েন অধিনায়ক কোহলি। ১০৩ বল খেলে ৩ চারে ৪২ রান করে যান তিনি। এরপর রাহুল ও রাহানে মিলে দিনের বাকি ৫.২ ওভার খেলে আসেন। লোকেশ রাহুলের ১২৭ রানে ভর করে দিনশেষে ভারতের সংগ্রহ দাঁড়ায় ৩ উইকেটে ২৭৬।