‘রাম মন্দির তৈরিতে চাঁদা দেননি কারা? তাদের চিনে রাখছে আরএসএস’

23
Social Share

কোটি কোটি ভারতবাসীর স্বপ্ন আজ সত্যি হতে চলেছে। বহু প্রতীক্ষিত রাম মন্দির (Ram Mandir) তৈরির কাজ শুরু হয়েছে। মন্দির নির্মাণের জন্য সারা দেশ জুড়ে অর্থ সংগ্রহ অভিযান চলছে। কর্ণাটকের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী এইচ ডি কুমারস্বামী (H. D. Kumaraswamy) অভিযোগ করেছেন, অযোধ্যায় রাম মন্দির নির্মাণের জন্য কারা চাঁদা দিচ্ছেন আর কারা দিচ্ছেন না, ‘নাৎসি কায়দায়’ আরএসএস তা চিহ্নিত করে রাখছে। যদিও আরএসএসের তরফে এই বক্তব্য নস্যাৎ করে দেওয়া হয়েছে। আরএসএস সাফ জানিয়েছে, এই অভিযোগের জবাব দেয়ারও কোনও প্রয়োজন নেই।

উল্লেখ্য, কদিন আগেই ট্রাস্ট (Shri Ram Janmbhoomi Teerth) জানিয়েছে, রাম মন্দির নির্মাণের জন্য সারা ভারত থেকে ইতিমধ্যেই ১৫০০ কোটির বেশি টাকা অনুদান সংগ্রহ করা হয়েছে।

মন্দির নির্মাণের জন্য বহু মানুষ ট্রাস্টের ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে সরাসরি অর্থ ট্রান্সফার করছেন। পাশাপাশি, বিভিন্ন হিন্দুত্ববাদী সংগঠনের কর্মী ও স্বেচ্ছাসেবীরাও দেশের নানা প্রান্তে ঘুরে ঘুরে সাধারণ মানুষের কাছ থেকে মন্দিরের জন্য অনুদান সংগ্রহ করছেন।

এহেন অবস্থায় মারাত্মক অভিযোগ তুললেন এইচ ডি কুমারস্বামী। টুইটে তিনি দাবি করেছেন, কোন কোন বাড়ি থেকে মন্দিরের জন্য চাঁদা দেওয়া হচ্ছে আর কারা দিচ্ছে না আরএসএস সেগুলোকে চিনে রাখছে। ঠিক যেভাবে নাৎসি শাসনামলে হিটলার করেছিলেন, তার শাসনে মৃত্যু হয়েছিল লাখ লাখ মানুষের।

কুমারস্বামীর এই মন্তব্যের পর কর্ণাটকের আরএসএসের মুখপাত্র ই এস প্রদীপ (E. S Pradeep) সাফ জানান, এই অভিযোগ এতটাই ভিত্তিহীন যে তারা এর কোনও জবাব দেওয়ারও প্রয়োজন বোধ করছেন না।