রাজাকারের উত্তরাধিকারদের আওয়ামী লীগের মনোনয়ন না দেয়ার দাবি মুক্তিযোদ্ধাদের

38
Social Share

স্টার্ফ রিপোর্টার: স্বাধীনতাবিরোধী শক্তি রাজাকার পরিবারের সদস্যদের আওয়ামী লীগের দলীয় পদ এবং সব নির্বাচনে দলীয় মনোনয়ন না দেয়ার দাবি জানিয়েছে মুক্তিযোদ্ধারা।

আজ বৃহস্পতিবার জাতীয় প্রেসক্লাবের আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এ দাবি জানানো হয়।বাংলাদেশ সচেতন মুক্তিযোদ্ধা ও প্রজন্ম পরিষদ আয়োজিত অনুষ্ঠানে শতাধিক মুক্তিযোদ্ধা ও পরিবারের সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, বঙ্গবন্ধুকে হত্যার পর তার কন্যা শেখ হাসিনার নেতৃত্বে মহান মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ও বাঙালি জাতির হারানো গণতান্ত্রিক অধিকার পুনরুদ্ধারের সংগ্রামের পথে যাত্রা শুরু করে আওয়ামী লীগ। অনেক অশ্রু, ত্যাগ ও রক্তের বিনিময়ে বাঙালি জাতি ফিরে পায় ভাত ও ভোটের অধিকার। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আওয়ামী লীগ সরকার বিভিন্ন ক্ষেত্রে যুগান্তকারী উন্নয়নের ফলে বিশ্বের বুকে বাংলাদেশকে একটি আত্মমর্যাদাশীল জাতি হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করেছে, কিন্তু স্বাধীনতার স্বপক্ষের শক্তি, জাতির পিতার সংগঠন আজ সেই স্বাধীনতা বিরোধী তথা রাজাকার, আলবদর, আল শাসম্ যারা আমাদের স্বাধীনকতা সার্বভৌম রাষ্ট্র গঠনে বিরোধীতা করেছে এবং জাতির পিতা শেখ মুজিবুর রহমানকে স্বপরিবারে হত্যার সাথে জড়িত ছিল তাদের পরিবারের সদস্যদের স্বাধীনতার স্বপক্ষের শক্তি, জাতির পিতার হাতে গড়া সংগঠনের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ পদে দেখা যাচ্ছে, যা অত্যন্ত দুঃখজনক। এজন্য আমরা দেশ স্বাধীন করি নাই, এমনকি কোথাও কোথাও আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়ন নিয়ে জনপ্রতিনিধি হয়ে স্বাধীনতাবিরোধী তথা আলবদর, আল শাসম্ এর লক্ষ্য উদ্দেশ্য বাস্তবায়ন করছে।

সংগঠনটির সাধারণ সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা জয়নাল আবেদীন লিখিত বক্তব্যে বলেন, আমরা বীর মুক্তিযোদ্ধারা স্বাধীনতার স্বপক্ষের শক্তির বিরুদ্ধে অবস্থান নেয়া কাউকে কোথাও যেন বীর মুক্তিযোদ্ধাদের চেতনায় বিশ্বাসী, বঙ্গবন্ধুর দল বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ থেকে যেন দলীয় মনোনয়ন না দেয়া হয় তার জন্য প্রধানমন্ত্রী এবং আওয়ামী লীগ সভানেত্রীর শেখ হাসিনার নিকট জোর দাবি জানাচ্ছি। একই সঙ্গে বলতে চাই স্বাধীনতাবিরোধী এই রাজাকার, আল বদর, আল শামস্ পরিবারের কোন সদস্যকে দলীয় মনোনয়ন দিলে আমাদের বীর মুক্তিযোদ্ধাদের অসম্মান করা হবে। যদি দলীয় মনোনয়ন দেয়া হয় এর প্রতিবাদে আমরা সচেতন বীর মুক্তিযোদ্ধা ও প্রজন্ম পরিষদ রাজপথে নামতে বাধ্য হবো।

সংগঠনটির সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা হুমায়ন কবির বাবুল বলেন, আওয়ামী লীগের কমিটিতে রাজাকার, আলবদর, আল শামস পরিবারের কোন সদস্যকে যেন দলীয় পদবী না দেয়া হয়। আর বর্তমানে যারা পদবী নিয়ে আছেন অনতিবিলম্বে তাদের যেন বহিষ্কার করা হয়। বীর মুক্তিযোদ্ধাদের সম্মানী ভাতা ২০,০০০ টাকা পাওয়ার জোর দাবি জানাই। সুদবিহীন বীর মুক্তিযোদ্ধাদের গৃহ নির্মাণ ঋণ দেয়া নিশ্চিত করার দাবি জানান তিনি।