রাজপথে উত্তাল তরঙ্গ সৃষ্টি করার আহ্বান মির্জা ফখরুলের

71
রাজপথে
Social Share

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, ‘আমাদের সকলকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে জনগণের কাছে চলে যেতে হবে। জনগণকে সঙ্গে নিয়ে এই রাজপথে উত্তাল তরঙ্গ সৃষ্টি করতে হবে। সেই তরঙ্গের মধ্য দিয়ে সুনামির মতো এই ফ্যাসিবাদী আওয়ামী লীগ সরকার ভেসে যাবে।

আজ বুধবার দুপুরে জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে বিএনপি পালিত ৫ জানুয়ারি ‘গণতন্ত্র হত্যা দিবস’র প্রতিবাদী মানববন্ধন কর্মসূচিতে তিনি এসব কথা বলেন। মির্জা ফখরুল বলেন, ‘আমাদের রাজপথে সামনে খুব কঠিন পথ, বন্ধুর পথ। এই পথ আমাদের পরি দিতে হবে।

তিনি আরো বলেন, ‘অত্যন্ত সুশৃঙ্খলভাবে ঐক্য গড়ে তুলতে হবে। আমাদের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের নেতৃত্বে সমগ্র বাংলাদেশে জাতীয়তাবাদী শক্তি ঐক্যবদ্ধ হচ্ছে। প্রত্যকটি সভাতে মানুষের ঢল নেমেছে। আজ ঢাকাতেও দেখলাম মানুষের ঢল নেমেছে। জনগণের উত্তাল জোয়ার শুরু হয়েছে। আমরা বিশ্বাস করি, জনগণের উত্তাল তরঙ্গের মধ্যে দিয়ে এই সরকার ভেসে যাবে।’

মির্জা ফখরুল বলেন, কোনো রকম রাজনৈতিক প্রতিহিংসার বশবর্তী না হয়ে দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে এ মুহূর্তে বিদেশে পাঠানোর ব্যবস্থা করা দরকার। চিকিৎসকরা আন্তরিকভাবে চেষ্টা চালাচ্ছেন। কিন্তু যেকোনো সময় তার জীবন নিয়ে আশঙ্কাজনক পরিস্থিতি তৈরি হতে পারে। দেশনেত্রীর অনাকাঙ্ক্ষিত কোনো কিছু হলে সরকারের প্রত্যেকেকে হত্যার আসামি করা হবে।

ঢাকা মহানগর উত্তর বিএনপির আহ্বায়ক আমানউল্লাহ আমানের সভাপতিত্বে মানববন্ধনে অন্যদের মধ্যে ঢাকা দক্ষিণের আহ্বায়ক ও চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আব্দুস সালাম, যুগ্ম-মহাসচিব খায়রুল কবির খোকন, বিএনপির সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক সেলিমুজ্জামান সেলিম এবং ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক ইকবাল হোসেন শ্যামল প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

……………………………………………………………………………………………….

মির্জা ফখরুল বলেন, কোনো রকম রাজনৈতিক প্রতিহিংসার বশবর্তী না হয়ে দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে এ মুহূর্তে বিদেশে পাঠানোর ব্যবস্থা করা দরকার। চিকিৎসকরা আন্তরিকভাবে চেষ্টা চালাচ্ছেন। কিন্তু যেকোনো সময় তার জীবন নিয়ে আশঙ্কাজনক পরিস্থিতি তৈরি হতে পারে। দেশনেত্রীর অনাকাঙ্ক্ষিত কোনো কিছু হলে সরকারের প্রত্যেকেকে হত্যার আসামি করা হবে।

দেশনেত্রীর অনাকাঙ্ক্ষিত কোনো কিছু হলে সরকারের প্রত্যেকেকে হত্যার আসামি করা হবে

ঢাকা মহানগর উত্তর বিএনপির আহ্বায়ক আমানউল্লাহ আমানের সভাপতিত্বে মানববন্ধনে অন্যদের মধ্যে ঢাকা দক্ষিণের আহ্বায়ক ও চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আব্দুস সালাম, যুগ্ম-মহাসচিব খায়রুল কবির খোকন, বিএনপির সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক সেলিমুজ্জামান সেলিম এবং ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক ইকবাল হোসেন শ্যামল প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।