যুক্তরাষ্ট্রে এক কোটিরও বেশি মানুষ নিয়েছেন করোনার টিকা

20
Social Share

ডেস্ক রিপোর্ট: দীর্ঘদিন ধরেই করোনায় সংক্রমণ ও মৃত্যু তালিকায় শীর্ষে রয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। দেশটির হাসপাতাল ও ক্লিনিকগুলোতে উপচে পড়ছে করোনা রোগীর ভিড়। তবে এরইমধ্যে এক কোটিরও বেশি নাগরিক করোনা টিকার আওতায় এসেছে যুক্তরাষ্ট্রে।

যুক্তরাষ্ট্রের সেন্টারস্ ফর ডিজিজ কন্ট্রোল অ্যান্ড প্রিভেনশন (সিডিসি) সেন্টার এই তথ্য জানিয়েছে। বুধবার পর্যন্ত এক কোটি দুই লাখ বাসিন্দাকে টিকা দেওয়া হয়েছে বলে সিডিসির পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে। সিডিসি ও প্রেসিডেন্টের কার্যালয় মঙ্গলবার কাদের প্রথমে টিকা দেওয়া উচিত সে বিষয়ে রাজ্যগুলোকে নতুন দিকনির্দেশনা দিয়েছে।

এতদিন স্বাস্থ্যসেবাকর্মীদের অগ্রাধিকার দেওয়ার কঠোর নিয়মের কারণে টিকাদান কর্মসূচির গতি মন্থর হয়ে পড়েছিল। তাই রাজ্যগুলোকে এখন ৬৫ বছরের বেশি বয়সী সবাইকে টিকা দেওয়ার আহ্বান জানানো হয়েছে। মঙ্গলবার যুক্তরাষ্ট্রের স্বাস্থ্য ও মানবিক সেবা মন্ত্রী আলেক্স আজার জানিয়েছেন, জরুরি ব্যবহারের জন্য যে দুটি টিকার অনুমোদন দেওয়া হয়েছে প্রশাসন সেগুলোর সব মজুদ ছেড়ে দিচ্ছে, যার মধ্যে সূচি অনুযায়ী দ্বিতীয় ডোজ নিশ্চিত করার জন্য সংরক্ষিত রাখা কিছু টিকাও আছে।

যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিটি অঙ্গরাজ্যে রোববার জরুরিভিত্তিতে পৌঁছে দেওয়া হয়েছে মার্কিন প্রতিষ্ঠান ফাইজার ও জার্মান প্রতিষ্ঠান বায়োএনটেকের যৌথ উদ্যোগে তৈরি করা কোভিড-১৯ ভ্যাকসিন।

আগামী বছরের মার্চের মধ্যে ১০ কোটি মার্কিনিকে এ টিকার আওতায় আনতে এ উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে।

ফাইজারের এ করোনার টিকা ৯৫ শতাংশ কার্যকর প্রমাণ হওয়ার পর যুক্তরাষ্ট্রের ফুড অ্যান্ড ড্রাগ অ্যাডমিনিস্ট্রেশন (এফডিএ) জরুরিভিত্তিতে দেশটিতে অনুমোদন দেওয়া হয়।

করোনা অতিমারি কালে বুধবার (১৩ জানুয়ারী) ছিল যুক্তরাষ্ট্রের সবচেয়ে ভয়াবহ দিন। দেশটিতে গত ২৪ ঘণ্টায় প্রাণ হারিয়েছেন ৪,৪৭০ জন। করোনায় মৃত্যুতে যার ফের রেকর্ড। গোটা বিশ্বে করোনায় আক্রান্ত ৯ কোটি ২১ লাখ। এর মধ্যে শুধু আমেরিকাতেই করোনায় সংক্রমিত ২ কোটি ৩৩ লাখ মানুষ। ১৯ লাখ ৭২ হাজার মৃত্যুর মধ্যে যুক্তরাষ্ট্রে প্রাণহানি হয়েছে ৩ লাখ ৮৯ হাজার।