ম্যারাডোনাকে পরিকল্পিতভাবে হত্যার অভিযোগ; ৭ জনের বিরুদ্ধে তদন্ত

58
Social Share

বিশ্বের অন্যতম সেরা ফুটবলার ডিয়েগো ম্যারাডোনাকে পরিকল্পিতভাবে হত্যার অভিযোগ উঠেছে। সেই অভিযোগে ৭ জনের বিরুদ্ধে তদন্তও শুরু হয়েছে। তদন্তে অভিযোগ প্রমাণিত হলে তাদের ৮ থেকে ২৫ বছরের কারাদণ্ড হতে পারে।

আদালতের রায়ে আগামী ৩১ মে’র মধ্যে এই ৭ জনকে তাদের জবাব দিতে বলা হয়েছে।

অভিযুক্তদের মধ্যে রয়েছেন স্নায়ু শল্যচিকিৎসক লিয়োপলদো লুক, মনোরোগ বিশেষজ্ঞ অগাস্তিনো কোসাশভ এবং মনোবিজ্ঞানী কার্লোস দিয়াজ। বাকিরাও স্বাস্থ্যকর্মী। অভিযুক্তদের দেশ ছাড়ায় নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়েছে।

ম্যারাডোনার দুই মেয়ে চিকিৎসক লুকের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেন। অস্ত্রোপচারের পর ম্যারাডোনার শারীরিক অবস্থার অবনতির জন্য লিয়োপলদো লুককে দায়ী করেন তারা। পরে তাতে যুক্ত হয় আরও ৬ জনের নাম।

গত বছরের ২৫ নভেম্বর ফুটবলবিশ্বকে কাঁদিয়ে পরপারে পাড়ি জমান ম্যারাডোনা। তখন জানানো হয়েছিল, হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয়েছে বিশ্বকাপজয়ী আর্জেন্টাইন ফরোয়ার্ডের। কিন্তু মৃত্যুর বিষয়টি নিয়ে অনেক প্রশ্ন দেখা দেয়। পরে মেডিকেল বিশেষজ্ঞদের এক তদন্তে জানা যায়, তার চিকিৎসায় গাফিলতি হয়েছে।