মেহেরপুরে নিম্নমানের ইট দিয়ে রাস্তা তৈরি করায় গ্রামবাসীর প্রতিবাদ

23
Social Share

মেহেরপুর প্রতিনিধি: মেহেরপুর সদর উপজেলার বুড়িপোতা ইউনিয়নের ফতেপুর গ্রামে ৭শ ফিট ইটের রাস্তা তৈরিতে নিম্নমানের ইট ব্যবহার করায় গ্রামবাসী কাজ বন্ধ করে দিয়েছে। ফতেপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে যাওয়ার এই সড়কে বুড়িপোতা ইউনিয়ন পরিষদের উদ্যোগে এলজিএসপির আওতায় ৭শ ফিট হেরিংবোন রাস্তা তৈরি করার টেন্ডার দেওয়া হয়। রনি নামের এক যুবক কাজটির ঠিকাদারী করছে। সকালে ঠিকাদারের শ্রমিকরা এক নাম্বার ইট দেওয়ার কথা থাকলেও নিম্নমানের তিন নম্বর ইট দিয়ে কাজ শুরু করে।

এ সময় ফতেপুর গ্রামের যুবসমাজ ৩ নাম্বার ইটের ব্যবহারের প্রতিবাদ করে এবং কাজ বন্ধ করে দেন। নিম্নমানের ইট ব্যবহারের প্রতিবাদ করায় ঠিকাদার রনি ও তার লোকজন গ্রামের কয়েকজন যুবককে মারধর করে। ঘটনাস্থলে গিয়ে নিম্নমানের ইট ব্যবহারের সত্যতা পাওয়া গেছে।

গ্রামবাসী জানান, রনি বুড়িপোতা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান শাহজামানের নিকটতম আত্মীয়। তার নির্দেশেই এই সড়কে নিম্নমানের ইট ব্যবহার করা হচ্ছে। বুড়িপোতা ইউপি চেয়ারম্যান শাহজামান মোবাইল ফোনের মাধ্যমে সাংবাদিকদের জানায়, এই রাস্তায় রনি নামের এক ছেলেকে টেন্ডার দেওয়া হয়েছে। ভাটা থেকে যখন ইট কেনা হয় ভাটার লোকেরা রাস্তার কাজ শুনে তিন নাম্বার ইট ঢুকিয়ে দিয়েছে।

তাই রনি এসব ইট দিয়ে কাজ শুরু করেছে। আমি রনিকে নিষেধ করে দিয়েছি এই ধরণের তিন নাম্বার ইট দিয়ে আর কাজ করা যাবেনা। এলাকাবাসীকে মারধর করার বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, এমন কিছুই হয়নি, এ ব্যাপারে আমি কিছুই জানিনা।