দ্বিতীয়বারের মতো মেট্রোরেল চলতে দেখলো রাজধানীবাসী

57
মেট্রোরেল
Social Share

রাজধানীর উত্তরা থেকে মতিঝিল পর্যন্ত নির্মাণ করা হচ্ছে দেশের প্রথম মেট্রোরেল পথ। প্রায় ২০ কিলোমিটার দীর্ঘ এই রেলপথের দিয়াবাড়ি থেকে আগারগাঁও পর্যন্ত আগামী বছরের ডিসেম্বর চালুর জন্য প্রস্তুতি চলছে। এখন চলছে পরীক্ষামূলক ট্রেন চলাচল।

গত ২৯ আগস্ট দিয়াবাড়ি থেকে মিরপুরের পল্লবী পর্যন্ত পরীক্ষামূলক ট্রেন চালানো হয়েছিল। সোমবার দুপুরে দিয়াবাড়ি থেকে মিরপুর-১০ নম্বরের কাছে ৬ নম্বর রেলস্টেশন পর্যন্ত ৬ বগির একটি  ট্রেন চালানো হয়

ঢাকা ম্যাস ট্রানজিট কোম্পানি লিমিটেড (ডিএমটিসিএল) সূত্রে জানা গেছে,  সোমবার দুপুর ১টার দিকে মেট্রো রেলের এই অংশে ট্রেন পরিচালনা করা হয়। ট্রেনের গতি ছিল ঘণ্টায় পাঁচ কিলোমিটার।

ডিএমটিসিএলের ব্যবস্থাপনা পরিচালক এম এ এন ছিদ্দিক বলেন, সোমবার দ্বিতীয়বার পরীক্ষামূলকভাবে মেট্রোরেল পথে ট্রেন চালানো হলো। প্রকল্প সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিরা এই ট্রেনের যাত্রী ছিলেন।

প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা গেছে, দিয়াবাড়ি থেকে রওনা দেওয়ার পর প্রতিটি স্টেশনে ট্রেনটি থেমেছে ১০ থেকে ১২ মিনিট। মিরপুরের অনেক ভবন থেকে বাসিন্দারা ট্রেন চলাচলের দৃশ্য উপভোগ করেন।

রাজধানীর উত্তরা থেকে মতিঝিল পর্যন্ত নির্মাণ করা হচ্ছে দেশের প্রথম মেট্রো রেলপথ। প্রায় ২০ কিলোমিটার দীর্ঘ এই রেলপথের দিয়াবাড়ি থেকে আগারগাঁও পর্যন্ত আগামী বছরের ডিসেম্বর চালুর জন্য প্রস্তুতি চলছে। এখন চলছে পরীক্ষামূলক ট্রেন চলাচল।

গত ২৯ আগস্ট দিয়াবাড়ি থেকে মিরপুরের পল্লবী পর্যন্ত পরীক্ষামূলক ট্রেন চালানো হয়েছিল। সোমবার দুপুরে দিয়াবাড়ি থেকে মিরপুর-১০ নম্বরের কাছে ৬ নম্বর রেলস্টেশন পর্যন্ত ৬ বগির একটি  ট্রেন চালানো হয়।

ঢাকা ম্যাস ট্রানজিট কোম্পানি লিমিটেড (ডিএমটিসিএল) সূত্রে জানা গেছে,  সোমবার দুপুর ১টার দিকে মেট্রো রেলের এই অংশে ট্রেন পরিচালনা করা হয়। ট্রেনের গতি ছিল ঘণ্টায় পাঁচ কিলোমিটার।

ডিএমটিসিএলের ব্যবস্থাপনা পরিচালক এম এ এন ছিদ্দিক বলেন, সোমবার দ্বিতীয়বার পরীক্ষামূলকভাবে মেট্রোরেল পথে ট্রেন চালানো হলো। প্রকল্প সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিরা এই ট্রেনের যাত্রী ছিলেন।

প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা গেছে, দিয়াবাড়ি থেকে রওনা দেওয়ার পর প্রতিটি স্টেশনে ট্রেনটি থেমেছে ১০ থেকে ১২ মিনিট। মিরপুরের অনেক ভবন থেকে বাসিন্দারা ট্রেন চলাচলের দৃশ্য উপভোগ করেন

প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা গেছে, দিয়াবাড়ি থেকে রওনা দেওয়ার পর প্রতিটি স্টেশনে ট্রেনটি থেমেছে ১০ থেকে ১২ মিনিট। মিরপুরের অনেক ভবন থেকে বাসিন্দারা ট্রেন চলাচলের দৃশ্য উপভোগ করেন।