মারধরের শিকার সেই শিক্ষার্থীর পড়ালেখা যেন বন্ধ না হয়: হাইকোর্ট

59
Social Share

চট্টগ্রামের হাটহাজারীর এক মাদ্রাসায় শিশু নির্যাতনের ঘটনায় উদ্বেগ প্রকাশ করে দেশের সংবিধান ও প্রচলিত আইন মাদ্রাসাসহ সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান কর্তৃপক্ষকে মেনে চলতে বলেছেন হাইকোর্ট। একইসঙ্গে চট্টগ্রামের হাটহাজারীর মাদ্রাসার নির্যাতিত শিশুর যেন পড়ালেখা ব্যাহত না হয় সেদিকে নজর রাখতে বলেছেন আদালত। এছাড়া শিশু ও শিশুর পরিবারের সদস্যরা যেন নিরাপত্তা হীনতায় না ভোগে সে বিষয়ে ব্যবস্থা নিতে বলেছেন আদালত।

শুনানির নির্ধারিত দিনে আজ রবিবার (১৪ মার্চ) হাইকোর্টের বিচারপতি নাজমুল আহাসান ও বিচারপতি শাহেদ নূর উদ্দিনের সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ স্বপ্রণোদিত হয়ে এসব পর্যবেক্ষণ দেন। বিষয়টি আদালতের পর্যবেক্ষণে থাকবে বলেও মন্তব্য করেন হাইকোর্ট।

হাইকোর্ট বলেছেন, মাদ্রাসায় নির্যাতন, বিভিন্ন মানসিক ও শারীরিক নির্যাতন, এমনকি যৌন নির্যাতনের ঘটনাও ঘটতে দেখা যায়। এ বিষয়ে অনেক আগে থেকে আদালতের নির্দেশনা আছে। নির্দেশনাগুলো সব জায়গায় যাতে কার্যকর হয়। কমিটি গঠনসহ আদালতের নির্দেশনার যথাযথ বাস্তবায়নে মাদ্রাসা কর্তৃপক্ষ যাতে সচেষ্ট থাকে।

এর আগে ১০ মার্চ চট্টগ্রামের হাটহাজারীর একটি মাদ্রাসায় আট বছর বয়সী এক ছাত্রকে বেধড়ক মারধরের ঘটনায় ওই শিক্ষক মাওলানা ইয়াহিয়ার বিরুদ্ধে কী পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে, তা জানাতে নির্দেশ দেন হাইকোর্ট। বৃহস্পতিবার বিচারপতি এফ আর এম নাজমুল আহাসান ও বিচারপতি শাহেদ নুরউদ্দিনের হাইকোর্ট বেঞ্চ স্বপ্রণোদিত হয়ে এই আদেশ দেন।