খালেদার বিদেশে চিকিৎসার দাবিতে বিএনপির এমপিদের মানববন্ধন

86
মানববন্ধন
Social Share

বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার বিদেশে উন্নত চিকিৎসার দাবিতে সংসদের সামনে মানববন্ধন করেছেন দলীয় সংসদ সদস্যরা। আজ রবিবার (২১ নভেম্বর) বেলা সাড়ে ১১টার দিকে সংসদ ভবনের উত্তরে গেটের সামনের সড়কে বিএনপির ছয় সংসদ সদস্য এ মানববন্ধন করেন।

মানববন্ধনে গোলাম মোহাম্মদ সিরাজ এমপি বলেন, খালেদা জিয়া আজকে জীবন-মৃত্যুর সন্ধিক্ষণে। সেখানে  চিকিৎসক, পরিবার, দল সবার বক্তব্য উপেক্ষা করা হচ্ছে।

তিনি বলেন, আইনমন্ত্রী যা বলছেন, তা পাগলের প্রলাপ। আমি বলতে চাই ৪০১ ধারার বহু নেগেটিভ-পজিটিভ বক্তব্য দিয়েছেন। আমরা সোজা বাংলায় বলতে চাই আপনি বলেছেন যে, হাজতে ঢুকতে হবে। জেলে ঢুকে আবার আবেদন করতে হবে। তাহলে ম্যাডাম জিয়া যে বাড়িতে আছেন সেই বাড়িকে সাবজেল ঘোষণা করা হোক। সেই বাড়িকে সাবজেল ঘোষণা করে সেখান থেকেই তো আবেদন নিয়ে ২৪ ঘণ্টার মধ্যে তাকে বিদেশে পাঠানো যায়। সরকার আমাদেরকে কী দেখায়?

এ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন সংসদ সদস্য হারুনুর রশীদ, উকিল আব্দুস সাত্তার, মোশারফ হোসেন, আমিনুল ইসলাম ও রুমিন ফারহানা।

এমপি রুমিন ফারহানা বলেন, ‘আইনমন্ত্রী ৪০১ ধারার অপব্যাখ্যা দিয়েছেন। আইনমন্ত্রী যে বক্তব্য দিয়েছেন, তা পুরোটাই মিথ্যা। এই সরকার অবৈধভাবে আইন ব্যবহার করে। কিন্তু খালেদা জিয়ার ক্ষেত্রে আইন ব্যবহার করে না। বলা হচ্ছে, খালেদা জিয়াকে জেলে গিয়ে আবেদন করতে হবে। তিনি এখন সিসিইউতে। তার পক্ষে কিভাবে জেলে গিয়ে আবেদন করা সম্ভব?’

তিনি আরো বলেন, ‘দেশে যদি আইনের শাসন থাকতো, বিচার বিভাগ স্বাধীন থাকতো, তাহলে এই ৪০১ ধারা লাগতো না। উনার বয়স শারীরিক অবস্থা সামাজিক মর্যাদা এতেই তিনি জামিন লাভের যোগ্য। তিনি জামিন পেতেন। তার উন্নত চিকিৎসার অভাবে কিছু হয়ে গেলে দায়ভার সরকারকে নিতে হবে।’

এমপি রুমিন ফারহানা বলেন, ‘আইনমন্ত্রী ৪০১ ধারার অপব্যাখ্যা দিয়েছেন। আইনমন্ত্রী যে বক্তব্য দিয়েছেন, তা পুরোটাই মিথ্যা। এই সরকার অবৈধভাবে আইন ব্যবহার করে। কিন্তু খালেদা জিয়ার ক্ষেত্রে আইন ব্যবহার করে না। বলা হচ্ছে, খালেদা জিয়াকে জেলে গিয়ে আবেদন করতে হবে। তিনি এখন সিসিইউতে। তার পক্ষে কিভাবে জেলে গিয়ে আবেদন করা সম্ভব?’

তিনি আরো বলেন, ‘দেশে যদি আইনের শাসন থাকতো, বিচার বিভাগ স্বাধীন থাকতো, তাহলে এই ৪০১ ধারা লাগতো না। উনার বয়স শারীরিক অবস্থা সামাজিক মর্যাদা এতেই তিনি জামিন লাভের যোগ্য। তিনি জামিন পেতেন। তার উন্নত চিকিৎসার অভাবে কিছু হয়ে গেলে দায়ভার সরকারকে নিতে হবে।’