ভ্যাকসিন কেনায় যাতে নয়ছয় না হয়, নজর রাখবেন প্রধানমন্ত্রী

74
Social Share

স্টার্ফ রিপোর্টার: পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান বলেছেন, ভ্যাকসিন কেনার ক্ষেত্রে যাতে নয়ছয় না হয়, সেদিকে প্রধানমন্ত্রীসহ আমরা সবাই দৃষ্টি রাখব। ভ্যাকসিন পাওয়াকে উচ্চ অগ্রাধিকার দেওয়া হচ্ছে। আমরা আশাবাদী, ইতোমধ্যেই করা চুক্তি অনুযায়ী ভ্যাকসিন পাওয়া যাবে। এ জন্য শতভাগ প্রস্ততি গ্রহণ করা হচ্ছে। বলতে গেলে, আমরা শতভাগ তৈরি।

আজ মঙ্গলবার রাজধানীর শেরেবাংলা নগরের এনইসি সম্মেলন কক্ষে একনেক সভা শেষে তিনি এসব কথা বলেন।

গণভবন থেকে সভায় সভাপতিত্ব করেন প্রধানমন্ত্রী ও একনেক চেয়ারপারসন শেখ হাসিনা। আর শেরে-বাংলা নগরে সম্মেলন কক্ষে পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নানসহ সংশ্লিষ্ট মন্ত্রী-সচিবরা উপস্থিত ছিলেন।

সভায় করোনাভাইরাস ভ্যাকসিন ক্রয়, সংরক্ষণ ও সরবরাহ বাবদ মোট ৪ হাজার ৩১৪ কোটি ৪৯ লাখ ১৭ হাজার টাকা চূড়ান্ত অনুমোদন দেওয়া হয়।

২০২১ সালের জুন পর্যন্ত ৩ হাজার ৩০ কোটি টাকা খরচ হবে ভ্যাকসিন কিনতে, বাকি অর্থ পর্যায় ক্রমে খরচ হবে প্রকল্পের আওতায়। চলতি বছরের ফেব্রুয়ারি-ডিসেম্বরের মধ্যে ভ্যাকসিন পাওয়ার সম্ভাবনা আছে বলে পরিকল্পনা কমিশনকে অবগত করেছে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর।

এর আগে মঙ্গলবার করোনার ভ্যাকসিন কিনতে একটি প্রকল্প অনুমোদন দিয়েছে জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটি (একনেক)। এক্ষেত্রে শুধু ভ্যাকসিন কিনতে ব্যয় হবে ৩ হাজার ৪৩৭ কোটি টাকা। এর সঙ্গে পরিবহন সংরক্ষণসহ আনুষাঙ্গিক ব্যয় মিলে মোট যাবে ৫ হাজার ৬৫৯ কোটি ৭ লাখ টাকা।