ভ্যাকসিন কিনতে পর্যাপ্ত বরাদ্দ রাখতে হবে: প্রধানমন্ত্রী

25
Social Share

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, সবচেয়ে বেশি গুরুত্ব দিতে হবে খাদ্য নিরাপত্তায়। কোনোভাবেই খাদ্য উৎপাদন ব্যাহত হতে দেওযা যাবে না। নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের যেন সংকট তৈরি না হয়, সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে।

মঙ্গলবার জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের (এনইসি) বৈঠকে এ নির্দেশনা দেন তিনি। সভা শেষে এনইসি মিলনায়তনে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে পরিকল্পনা বিভাগের সচিব মোহাম্মদ জয়নুল বারী প্রধানমন্ত্রীর অনুশাসন তুলে ধরে বলেন, সভায় চলতি অর্থবছরের সংশোধিত বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচি অনুমোদন দেওয়া হয়েছে।

প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, যেহেতু মন্ত্রণালয় ও বিভাগগুলোকে চাহিদা অনুযায়ী বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে, তাই প্রকল্পের কাজে গতি বাড়াতে হবে। নির্ধারিত সময়ের মধ্যে প্রকল্পের কাজ শেষ করতে হবে। শুষ্ক মৌসুমে কাজ করতে বলেছেন প্রধানমন্ত্রী। করোনার ভ্যাকসিন কেনা হচ্ছে, আরও কেনা হবে এজন্য প্রয়োজনীয় বরাদ্দ রাখতে হবে। সবচেয়ে বেশি গুরুত্ব দিতে হবে খাদ্য নিরাপত্তায়। প্রকল্প পরিচালকদের (পিডি) প্রকল্প এলাকায় থাকার নির্দেশনা দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। একই ব্যক্তিকে যেন একাধিক প্রকল্পের পিডি হিসেবে দায়িত্ব না দেওয়া হয়, সে নির্দেশনাও দিয়েছেন তিনি। দেশে করোনাভাইরাস সংক্রমণের হার এখন গত কয়েকমাসের মধ্যে সর্বনিম্ন অবস্থানে রয়েছে। প্রায় সব কার্যক্রমই স্বাভাবিকভাবে চলছে। এ পরিস্থিতিতে খাদ্য উৎপাদন যেন কোনোভাবেই ব্যাহত না হয়, প্রধানমন্ত্রী সেদিকে নজর রাখতে নির্দেশনা দিয়েছেন।

প্রধানমন্ত্রী ও এনইসি চেয়ারপারসন শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে মঙ্গলবার গণভবনের সঙ্গে সংযুক্ত হয়ে ভিডিও কানফারেন্সিং-এর মাধ্যমে শেরেবাংলা নগরস্থ এনইসি সম্মেলন কক্ষে এনইসির সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভা শেষে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে বাস্তবায়ন, পরিবীক্ষণ ও মূল্যায়ন বিভাগের (আইএমইডি) সচিব প্রদীপ রঞ্জন চক্রবর্তীসহ পরিকল্পনা কমিশনের সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।