ভাসানী বিশ্ববিদ্যালয়ের মেডিকেল সেন্টারের বেহাল দশা, জনবল সংকট 

80
Social Share
কাজল আর্য, স্টাফ রিপোর্টার:
টাঙ্গাইলের মাওলানা ভাসানী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের মেডিকেল সেন্টারের একেবারে বেহাল দশা। পরিবেশগত সমস্যা ও জনবল সংকটে ব্যাহত হচ্ছে সেবা কার্যক্রম।
দেখা যায় মেডিকেল সেন্টারের ভবনটি অনেক পুরাতন।  ইঁদুরের বিষ্ঠায় প্যাথলজির রুম নোংরা থাকে। অনেক দামি যন্ত্রপাতি ও রিপোর্ট নষ্ট হওয়ার উপক্রম। ছাদ ও দেয়াল দিয়ে পানি পড়ে রং উঠে শেওলা জমাট বেঁধেছে। স্টোর রুম অকেজো হয়ে ব্যবহারের অনুপযোগী হয়ে গেছে। রয়েছে জনবল সংকটও। বর্তমানে মেডিকেল সেন্টারের বেড সংখ্যা প্রয়োজনের তুলনায় অপ্রতুল।
জানা যায় বিশ্ববিদ্যালয়ের ৭১৩৬ জনের (ছাত্র-ছাত্রী ৬৩৪৭ জন, শিক্ষক ২৩৯ জন,কর্মকর্তা ২৩৮ জন, কর্মচারী ৩১২ জন) জন্য বেড সংখ্যা মাত্র ২ টি। আবার ২৪ ঘন্টা ডাক্তার থাকেন না। তাই শিক্ষার্থীরা শহর কেন্দ্রীক হাসপাতালগুলোতে সেবা নিতে বাধ্য হন।
বিশ্ববিদ্যালয়ের ডেপুটি চীফ মেডিকেল অফিসার ডা. কাওসার আহমেদ বলেন ছাদ দিয়ে পানি পড়ে। আমাদের বসার জায়গায়ও পানি চলে আসে। এখানে সেবাদান খুবই কষ্টকর। জনবলের চাহিদা দেওয়া হয়েছে।
নিয়মিত সেবা দান, সেবার মান বৃদ্ধি, দ্রুত ডাক্তার ও প্রয়োজনীয় জনবল নিয়োগের দাবি করেছেন ভুক্তভোগীরা।
বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান প্রকৌশলী আবু তালেব জানান, মেডিকেল সেন্টারটি অনেকবার সংস্কার করেছি। এখন প্রায় পরিত্যক্তের মতো অবস্থা হয়েছে। সংস্কার না করে নতুন মাল্টিপারপাস ভবনে নিয়ে যাওয়া হবে। টেকনিক্যাল কিছু সমস্যার কারনে স্থানান্তর সম্ভব হচ্ছে না।
বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি ড. মোঃ আলাউদ্দিন বলেন আমাদের মাল্টিপারপাস বিল্ডিংয়ের কাজ প্রায় শেষ। মেডিকেল সেন্টারটি মাল্টিপারপাস বিল্ডিংয়ে স্থানান্তর করবো।