ভাসানচরে রোহিঙ্গা স্থানান্তরে দেরি এনজিও ও বিদেশি সংস্থার চাপে : পররাষ্ট্রমন্ত্রী

Social Share

কিছু এনজিও ও বিদেশি সংস্থার কারণে রোহিঙ্গাদের ভাসানচরে পাঠাতে দেরি হচ্ছে বলে জানিয়েছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন। ভাসানচরে রোহিঙ্গা স্থানান্তরের দিনক্ষণ এখনো ঠিক হয়নি বলেও জানান তিনি।

আজ রবিবার দুপুরে রাজশাহী কলেজ পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে এ কথা বলেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী। পরে তিনি রাজশাহী কলেজশিক্ষকদের আয়োজনে এক মতবিনিময়সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য দেন।

রোহিঙ্গাদের জন্য যে আবাসনের ব্যবস্থা করা হয়েছে, তা খুবই উন্নতমানের। শিগগিরই রোহিঙ্গাদের সেখানে স্থানান্তরপ্রক্রিয়া শুরু করা হবে জানিয়ে পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, রোহিঙ্গারা এখন যেখানে আছেন, সেখানে তিনবেলা খাচ্ছেন আর নানা অপকর্মে জড়িয়ে পড়ছেন।

তিনি বলেন, ভাসানচর চমৎকার জায়গা। এখন পর্যন্ত ৩০৬ জনকে ভাসানচরে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। সেখানে বসবাস করা রোহিঙ্গা নারীরা কাজ শুরু করেছেন। অনেক রোহিঙ্গা সেখানে যেতে ইচ্ছুক, তবে বেশ কিছু এনজিও ও বিদেশি শক্তি তাদের ভাসানচরে যেতে নিরুৎসাহিত করছেন। তবে রোহিঙ্গা ইস্যুতে আগামীতে যুক্তরাষ্ট্রের যথেষ্ট সহযোগিতা পাব।