ভারতে বেকারত্বের হার চরমে

ভারতের অর্থনৈতিক অবস্থা একেবারে তলানিতে গিয়ে ঠেকেছে। জিডিপি বৃদ্ধির হার নিম্নগামী। শেয়ারবাজারের অবস্থাও খারাপ।শিল্পের গতিও মন্থর। এ অবস্থায় কাটা ঘায়ে নুনের ছিটে দেয়ার মতো ঘটনা প্রকাশ্যে এসেছে।

আর তা সে দেশের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সরকারের তোলা স্লোগান সবকা সাথ সবকা বিকাশ-কে চ্যালেঞ্জের মুখে ফেলে দিয়েছে। কী ঘটেছে ভারতে?‌

জানা গেছে, ভারতে বেকারত্বের হার সবচেয়ে বেশি বেড়েছে চলতি বছরের অক্টোবর মাসে। আট দশমিক পাঁচ শতাংশ বেকারত্বের হার বেড়েছে। ২০১৬ সালের সেপ্টেম্বর মাসে ছিল সাত দশমিক দুই শতাংশ।

তা এবার বেড়ে দাঁড়িয়েছে আট দশমিক পাঁচ শতাংশে। এক কথায় ভারতের এই পরিস্থিতি যথেষ্ট উদ্বেগের। আজ শুক্রবার একটি সমীক্ষার ফল প্রকাশ্যে এনেছে সেন্টার ফর মনিটরিং ইন্ডিয়ান ইকোনমি।

যে পরিকাঠামো বৃদ্ধি নিয়ে মোদি কিংবা অর্থমন্ত্রী সুর চড়ান, সেটাও তলানিতে গিয়ে ঠেকেছে বলে ওই রিপোর্টে উল্লেখ করা হয়। সারা ভারতের পরিকাঠামো পাঁচ দশমিক দুই শতাংশে নেমে গেছে।

২০১৮ সালেও যা ছিল না। এটাই সবচেয়ে খারাপ পারফরম্যান্স বলে উল্লেখ করা হয়েছে ওই রিপোর্টে। সরকারি নথিতেই সেটা রয়েছে। গত ৬ বছরে ইন্ডাস্ট্রিয়াল আউটপুট সব চেয়ে তলানিতে গিয়ে পৌঁছেছে বলে জানা গেছে। সুতরাং ভারতের বিকাশ কতটা হয়েছে তা এই রিপোর্ট থেকেই পরিস্কার বলে মনে করা হচ্ছে।