ভারতে করোনা টিকার দাম হবে ২২৫ টাকা, সেরামের সঙ্গে চুক্তি করল বিল গেটসের সংস্থা

Social Share

নয়াদিল্লি: করোনার ভ্যাকসিন তৈরি করে তা বাজারজাত করতে ভারতের সেরাম ইনস্টিটিউট অফ ইন্ডিয়ার সঙ্গে চুক্তি করল বিল অ্যান্ড মেলিন্ডা গেটস ফাউন্ডেশন (Bill & Melinda Gates Foundation) ও আন্তর্জাতিক ভ্যাকসিন জোট গ্যাভি (GAVI)। চুক্তি অনুযায়ী, অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকা ও নোভাভ্যাক্সের করোনা ভ্যাকসিন অনুমোদন পাওয়ার পর তার ১০০ মিলিয়ন ডোজ (১০ কোটি) তৈরি করে বিভিন্ন দেশে সরবরাহ করবে সেরাম ইনস্টিটিউট। এর জন্য সেরামকে ১৫০ মিলিয়ন ডলার (১৫ কোটি ডলার) দিয়েছে বিল অ্যান্ড মেলিন্ডা গেটস ফাউন্ডেশন।

সেরামের সঙ্গে এই চুক্তির উদ্দেশ্য হল যাতে অনুন্নত দেশগুলির গরিব মানুষের কাছে অত্যন্ত সস্তায় ভ্যাকসিনটি পৌঁছয়। জানা গিয়েছে, অক্সফোর্ডের এই ভ্যাকসিনের প্রতিটি ডোজের দাম হতে পারে ৩ ডলার, অর্থাৎ ভারতীয় মুদ্রায় মাত্র ২২৫ টাকা। চুক্তি অনুযায়ী, ভারত-সহ বিশ্বের আরও ৯৩টি দেশে ভ্যাকসিন পৌঁছে দেবে সেরাম। ১০ কোটি ভ্যাকসিন তৈরির জন্য গ্যাভি এবং বিল ও মেলিন্ডা গেটস ফাউন্ডেশন ১৫ কোটি ডলার দিয়েছে সেরামকে।

এই চুক্তির জন্য সেরামের কর্ণধার আদর পুনাওয়ালা বিল গেটসকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন। শুক্রবার টুইটে আদর পুনাওয়ালা জানিয়েছেন, তাঁর সংস্থা সেরাম GAVI এবং বিল ও মেলিন্ডা গেটস ফাউন্ডেশনের সঙ্গে চুক্তি করেছে। ১০ কোটি ডোজ ভ্যাকসিন দ্রুত বানানোর উদ্দেশ্যে এই চুক্তি করা হয়েছে। ভ্যাকসিনের দাম যতটা সম্ভব কম রাখা হবে, যাতে সকলের নাগালের মধ্যে থাকে।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (WHO) থেকে অনুমোদন মিললেই ভ্যাকসিন বাজারজাত করা হবে। জানা গিয়েছে, ভ্যাকসিন বিতরণ করা হবে কোভ্যাক্স পদ্ধতিতে। উল্লেখ্য, বিশ্বের প্রতিটি দেশ যাতে ভ্যাকসিন পায়, তা নিশ্চিত করতেই কোভ্যাক্স তৈরি করা হয়েছে। গ্যাভি, কোয়ালিশন অব এপিডেমিক প্রিপিয়ার্ডনেস ইনোভেশনস ও বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার নেতৃত্বে গঠিত হয়েছে কোভ্যাক্স।