ভারতীয় হাইকমিশনারের রামপাল বিদ্যুৎ কেন্দ্র পরিদর্শন

Social Share

বাংলাদেশে নিযুক্ত ভারতের হাইকমিশনার বিক্রম কে দুরাইস্বামী বাগেরহাট জেলার রামপাল উপজেলায় নির্মাণাধীন কয়লা ভিত্তিক ১৩২০ মেগাওয়াট উৎপাদন ক্ষমতাসম্পন্ন রামপাল বিদ্যুৎ কেন্দ্র (আরপিপি) পরিদর্শন করেছেন।
গতকাল রোববার বিদ্যুৎ কেন্দ্র পরিদর্শনকালে তিনি বলেন, আরপিপি-বাস্তবায়নকারী সংস্থা ‘বাংলাদেশ-ইন্ডিয়া ফ্রেন্ডশিপ পাওয়ার কোম্পানি লিমিটেড (বিআইএফপিসিএল)’ বন্ধুত্বপূর্ণ দুই প্রতিবেশী দেশের মধ্যকার বন্ধুত্বের এক অপূর্ব নিদর্শন।
তিনি বলেন, ‘এটি কেবল একটি বাণিজ্যিক প্রকল্প নয়। এটি বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্কের একটি প্রকল্প। বাংলাদেশ সরকার প্রকল্পটি শেষ করতে সর্বোচ্চ জোর দিয়েছে এবং সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ এটি দ্রুত এবং সুন্দরভাবে সম্পন্ন করতে কাজ করছে।’
দুরাইস্বামী বলেন, বিদ্যুৎ কেন্দ্রটিতে ২০২১ সালের ডিসেম্বরের মধ্যে উৎপাদন শুরু হবে। আর মুজিব বর্ষে এর সমস্ত নির্মাণ কাজ শেষ হবে বলে তিনি আশা প্রকাশ করেন।
রামপাল বিদ্যুৎ কেন্দ্র কর্তৃপক্ষ তার সামাজিক দায়বদ্ধতার বহুমাত্রিক কার্যক্রম পরিচালনা করছে উল্লেখ করে হাই কমিশনার বলেন, ভারত এবং বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী এবং সংশ্লিষ্ট উভয় কর্তৃপক্ষ দ্রুত এই প্রকল্পের কাজ শেষ করার জন্য সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিয়েছে।
বৈশ্বিক মহামারী করোনাভাইরাস সম্পর্কে তিনি বলেন, দুই প্রতিবেশী দেশ কোভিড -১৯ মহামারী মোকাবেলায় অক্লান্ত কাজ করছে।
তিনি আরও বলেন, বিশ্বব্যাপী মহামারীর বিষয়টি বিবেচনা করে ভারত সরকার ভিসা এবং রফতানি-আমদানি বাণিজ্য সহ অন্যান্য খাতের বিষয়গুলো সহজ করেছে।
ভারতীয় হাইকমিশনের হেড অব চ্যান্সরি মিধুন রাঘাওয়ান, তৃতীয় সচিব শিবনাথ পাল, খুলনা কনস্যুলেটে ভারতীয় সহকারী হাই কমিশনার রাজেশ কুমার রায়না, বাংলাদেশের বিদ্যুৎ বিভাগের যুগ্ম-সচিব এটিএম মোস্তফা কামাল, বিআইএফপিসিএলের ব্যবস্থাপনা পরিচালক প্রকৌশলী অনিমেষ জৈন, বাগেরহাটের জেলা প্রশাসক মামুনুর রশিদ ও পুলিশ সুপার পঙ্কজ চন্দ্র রায় প্রমুখ এ সময় উপস্থিত ছিলেন।
পরে হাই কমিশনার বিদ্যুৎ কেন্দ্রের চত্বরে একটি গাছের চারা রোপণ করেন।