ভারতীয় মহিলা হিসেবে প্রথম, চীনের হিকে হারিয়ে অলিম্পিকে ব্রোঞ্জ সিন্ধুর

57
Social Share

এর আগে কোনও ভারতীয় মহিলার এই কৃতিত্ব নেই। সেক্ষেত্রে পিভি সিন্ধুই প্রথম। এই নিয়ে দু’‌–দু’‌বার অলিম্পিকে ব্যক্তিগত বিভাগে পদক জয় করলেন এই ব্যাডমিন্টন তারকা। ভারতের ইতিহাসে প্রথম। চীনের হি বিং জিয়াংকে হারিয়ে ব্রোঞ্জ পেলেন সিন্ধু।
অলিম্পিকে এদিনের ম্যাচে নামার আগে অবশ্য একটু এগিয়েই ছিলেন চীনের হি। পরিসংখ্যানের দিক থেকে। দুই খেলোয়াড় এর আগে মুখোমুখি হয়েছিলেন ১৫ বার। হি জিতেছিলেন ৯ বার। সিন্ধুর পকেটে ছিল ছ’‌টি জয়। এবার অলিম্পিকে সব অতীত রেকর্ড উল্টে গেল। অনেকটাই এগিয়ে গেলেন সিন্ধু।
এদিন যেন অন্য মেজাজে ছিলেন সিন্ধু। নেটের সামনে খেলা হোক বা স্ম্যাশ, কোনও কিছুতেই প্রতিপক্ষকে জমি দিলেন না তিনি। লম্বা র‍্যালিতেও দাপট দেখালেন তিনিই। প্রথম গেমের শুরুতেই হি বিং জিয়াওয়ের বিরুদ্ধে ৪–০ ব্যবধানে এগিয়ে গিয়েছিলেন পিভি সিন্ধু। সেখান থেকে সমতা ফেরান চীনের হি। একসময় ম্যাচের ফল ছিল ৮–৮। এরপর ম্যাচের ওপর ক্রমে নিজের নিয়ন্ত্রণ কায়েম করে পিভি সিন্ধু। পরপর ৬ পয়েন্ট তুলে নিয়ে ১৪–৮ ব্যবধানে এগিয়ে যান। শেষ পর্যন্ত ২১–১৩ পয়েন্টে প্রথম গেম জিতে নেন সিন্ধু।
শনিবার সেমিফাইনালে সে ভুল করেছিলেন, এদিন আর তা করেননি। নিজের উচ্চতাকে কাজে লাগিয়ে ম্যাচ বের করে নেন। ২০১৬ সালের রিও অলিম্পিকেও ব্রোঞ্জ জিতেছিলেন সিন্ধু। এর আগে সুশীল কুমার অলিম্পিকে দু’‌–দু’‌বার পদক জিতেছিলেন। ২০০৮ সালে ব্রোঞ্জ এবং ২০১২ সালের অলিম্পিকে রুপো জিতেছিলেন সুশীল। আজকাল