‘ভাইফোঁটায় যেতে চেয়েছিলাম, মমতা কালীপূজায় ডাকলেন’

ভারতের পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী রাজ্যপালকে ভাইফোঁটায় আমন্ত্রণ জানিয়েছেন বলে গতকাল শুক্রবার জানা যায়। তবে শনিবার রাজ্যপালের কথায় উঠে এসেছে নতুন ঘটনা। শনিবার বারাসতে তরুছায়া ক্লাবের পূজা উদ্বোধনে গিয়ে রাজ্যপাল জগদীপ ধনকড় জানান, ‘আমি ও আমার স্ত্রী মুখ্যমন্ত্রীকে চিঠি লিখে জানিয়েছিলাম যে আমরা ভাইফোঁটায় তার বাড়িতে যেতে চাই।

তিনি আরো বলেন, মমতা ব্যানার্জি তখন উত্তরবঙ্গ সফরে ছিলেন। পরে সেখান থেকে ফিরে আমাদের চিঠির প্রাপ্তি স্বীকার করেন। এরপর মুখ্যমন্ত্রী আমাদের কালীঘাটে তার বাড়ির কালীপূজায় আমন্ত্রণ জানান। তার আমন্ত্রণ পেয়ে আমি অভিভূত। আমি ও আমার স্ত্রী কালীপূজায় তার বাড়িতে যাচ্ছি।

এদিকে, বারাসতের ওই পূজা রাজ্যপাল উদ্বোধন করায় পূজা কমিটির প্রধান উপদেষ্টা পদ থেকে সরে দাঁড়িয়ে বিতর্ক বাধিয়েছেন বারাসতের পুরপ্রধান সুনীল মুখোপাধ্যায়। রাজ্যপালের প্রতি মমতার দলের নেতাদের বিরূপ মনোভাব কোন চরম পর্যায়ে গেলে এরকমটা ঘটতে পারে, তার ছবি সামনে আসতেই এ নিয়ে জোর চর্চা শুরু হয়েছে।

আর এ প্রেক্ষিতে আজ ওই পূজার উদ্বোধনের পর রাজ্যপালকে প্রশ্ন করেন সাংবাদিকরা। যে প্রশ্নের জবাব দিতে গিয়ে এ কথা বলেন রাজ্যপাল। শেষে জগদীপ ধনকড় এও জানিয়ে দেন, মুখ্যমন্ত্রীর আমন্ত্রণে আমি ও আমার স্ত্রী অভিভূত। এর বাইরে অন্য প্রশ্নের উত্তর দেওয়ার দরকার নেই।