ভবিষ্যতে বিতর্ক এড়াতে অভিনব পন্থা, রাম মন্দিরের ২,০০০ ফুট নীচে থাকছে টাইম ক্যাপসুল

Social Share

লখনউ: ৫০০ বছর লড়াইয়ের পর অযোধ্যার বিতর্কিত জমিতে শুরু হতে চলেছে রাম মন্দির নির্মাণের কাজ। আগামী ৫ আগস্ট অযোধ্যায় রাম মন্দিরের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করবেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। তবে ভবিষ্যতে যাতে ফের বিতর্ক তৈরি না হয় তার জন্য মন্দিরের নীচে একটি টাইম ক্যাপসুল পুতে রাখা হবে। এমনটাই জানালেন শ্রীরাম জন্মভূমি তীর্থক্ষেত্রের সদস্য কমেশ্বর চৌপাল।

রবিবার কমেশ্বর চৌপাল বলেন, রাম জন্মভূমির জন্য দীর্ঘ আইনি লড়াই করতে হয়েছে। যা বর্তমান এবং ভবিষ্যৎ প্রজন্মকে একটি বিষয় শিখিয়েছে। দীর্ঘ আইনি লড়াই থেকে এই বিষয়টি উপলব্ধি করা হয়েছে। তাই মন্দিরের ২,০০০ ফুট নীচে একটি টাইম ক্যাপসুল রাখা হবে, যাতে ভবিষ্যতে কেউ যদি মন্দিরের ইতিহাস জানতে চান, তাহলে রাম জন্মভূমির জন্য লড়াই সংক্রান্ত সব তথ্য পাওয়া যাবে।

কমেশ্বর চৌপাল বলেন, ক্যাপসুলটি তামার পাত্রে তথ্যগুলি সংরক্ষণ করা হবে। এটির দ্বারা কেউ যদি মন্দিরের ইতিহাস সম্পর্কে জানতে চান, তবে তিনি রাম জন্মভূমি সম্পর্কিত সমস্ত তথ্য পেয়ে যাবেন। যার ফলে কোনও নতুন বিতর্ক সৃষ্টিও হবে না।‌ পাশাপাশি তিনি বলেন, এই জমির মালিকানা সংক্রান্ত সমস্ত উত্তরও পাওয়া যাবে এই ক্যাপসুলে।

৫ আগস্ট প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীই অযোধ্যায় রাম মন্দিরের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করবেন। মন্দির নির্মাণের প্রস্তুতি পুরোদমে শুরু হয়ে গিয়েছে। গেরুয়া শিবিরে উন্মাদনা ছড়িয়ে পড়েছে। তার মধ্যেই রবিবার এই বিশেষ টাইম ক্যাপসুল বিষয়ে ঘোষণা করা হল। আদিকালে প্রাচীন স্থাপত্যের তলায় সেই বিশেষ স্থাপত্যের সম্পর্কে লেখা পুঁথি বা পাথরের ফলক, শিলালিপি পাওয়া যেত, যা থেকে সেই বিশেষ স্থাপত্যের ইতিহাস সম্পর্কে বিস্তারিত জানা যেত। এই টাইম ক্যাপসুলও তেমনই কাজ করবে।