বেসরকারি ব্যবসার জন্য অর্থনীতি উন্মুক্ত করছে কিউবা

18
Social Share

কমিউনিস্ট মতাদর্শে পরিচালিত কিউবার অর্থনীতি উন্মুক্ত করে দেওয়া হচ্ছে। মহামারি করোনার (কোভিড-১৯) কারণে সৃষ্ট স্থবিরতা মোকাবিলায় রাষ্ট্রমালিকানাধীন অর্থনীতিতে বড় ধরনের সংস্কারের অংম হিসেবে বেশির ভাগ বাণিজ্য খাতে ব্যক্তি মালিকানায় ব্যবসার অনুমোদনের ঘোষণা দিয়েছে দেশটির সরকার।

দেশটির শ্রমমন্ত্রী মার্তা এলেনা ফেইতো বলেছেন, কিউবায় ১২৭টি বেসরকারি ব্যবসায় প্রতিষ্ঠান আছে। এবার ২ হাজারের বেশি প্রতিষ্ঠানকে অনুমোদনের ঘোষণা দেওয়া হয়েছে। হাতেগোনা অল্প কয়েকটি খাত সরকারের হাতে থাকবে।

শুধু ১২৪টি প্রতিষ্ঠান সরকারের হাতে থাকবে বলে জানান শ্রমমন্ত্রী মার্তা এলেনা ফেইতো। তবে সেগুলো কোন কোন প্রতিষ্ঠান তা জানাননি তিনি। সংবাদ সংস্থা এএফপি বলেছে, সংবাদমাধ্যম, স্বাস্থ্য সেবা ও প্রতিরক্ষা খাতের প্রতিষ্ঠানগুলো হয়ত সরকারের নিয়ন্ত্রণে রাখা হবে।

উৎপাদনশীলতা বাড়বে বলে আশা প্রকাশ করে শ্রমমন্ত্রী বলেন, ‘বেসরকারি খাতের উন্নয়নের লক্ষ্যে এই সংস্কার আনা হচ্ছে।’

সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প প্রশাসনের অর্থনৈতিক নিষেধাজ্ঞা এবং মহামারি করোনার উপর্যুপরি আঘাতে নাজুক অবস্থায় পড়েছে কিউবার অর্থনীতি। গত বছর ১১ শতাংশ অবনতি হয়। ৪০ শতাংশ পর্যটন নির্ভর অর্থনীতির দেশ কিউবায় ৩ দশকের মধ্যে সবচেয়ে শোচনীয় পরিস্থিতি দেখা দিয়েছে।

১ কোটি ১৩ লাখ জনসংখ্যার দেশটিতে নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্যেরও সংকট দেখা দিয়েছে।

সূত্র: বিবিসি