বেকাদায় তৃণমূল, এবার বেসুরো হলেন সাংসদ শতাব্দী রায়

21
Social Share

আর মাত্র কয়েকমাস বাকি রাজ্যের বিধানসভা ভোটের। আসন্ন বিধানসভা নির্বাচনের আগে অস্বস্তিতে রাজ্যের শাসকদল তৃণমূল শিবির। একের পর নেতা-নেত্রী ঘাসফুল শিবির ত্যাগ, ইস্তফা, বেসুরো হচ্ছেন। এবার বেসুরো হলেন তৃণমূল সাংসদ শতাব্দী রায় (Satabdi Roy)। অভিনেত্রীর একটি ফেসবুক পোস্টকে কেন্দ্র করে চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে রাজনৈতিক মহলে।

এদিন শতাব্দী রায় ফ্যান ক্লাব নামে একটি ফেসবুক পেজের পোস্টে লেখা হয়েছে, ২০২১ সবার খুব ভালো কাটুক। সুস্থ থাকুন, সাবধানে থাকুন। এলাকার সঙ্গে আমার নিয়মিত নিবিড় যোগাযোগ। কিন্তু ইদানীং অনেকে আমাকে প্রশ্ন করছেন কেন আমাকে বহু কর্মসূচিতে দেখা যাচ্ছে না। আমি তাঁদের বলছি যে আমি সর্বত্র যেতে চাই। আপনাদের সঙ্গে থাকতে আমার ভালো লাগে। কিন্তু মনে হয় কেউ কেউ চায় না আমি আপনাদের কাছে যাই। বহু কর্মসূচির খবর আমাকে দেওয়া হয় না। না জানলে আমি যাব কী করে? এ নিয়ে আমারও মানসিক কষ্ট হয়। গত দশ বছরে আমি আমার বাড়ির থেকে বেশি সময় আপনাদের কাছে বা আপনাদের প্রতিনিধিত্ব করতে কাটিয়েছি, আপ্রাণ চেষ্টা করেছি কাজ করার, এটা শত্রুরাও স্বীকার করে। তাই এই নতুন বছরে এমন সিদ্ধান্ত নেওয়ার চেষ্টা করছি যাতে আপনাদের সঙ্গে পুরোপুরি থাকতে পারি। আপনাদের প্রতি আমি কৃতজ্ঞ।

তবে ওই পোস্টের সঙ্গে শতাব্দী রায় নিজেই করেছেন কি না, তা জানা সম্ভব হয়নি। ওই ফেসবুক পোস্টে আরও লেখা হয়েছে, ২০০৯ সাল থেকে আপনারা আমাকে সমর্থন করে লোকসভায় পাঠিয়েছেন। আশা করি ভবিষ্যতেও আপনাদের ভালোবাসা পাব। সাংসদ অনেক পরে, তার অনেক আগে থেকেই শুধু শতাব্দী রায় হিসেবেই বাংলার মানুষ আমাকে ভালোবেসে এসেছেন। আমিও আমার কর্তব্য পালনের চেষ্টা করে যাব। যদি কোনো সিদ্ধান্ত নিই আগামী ১৬ জানুয়ারি, ২০২১ (শনিবার) দুপুর দুটোয় জানাব।

সম্প্রতি বোলপুরে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের মিছিলে সামনে থেকে মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে পা মিলিয়েছিলেন জেলার সাংসদ শতাব্দী। তবে তৃণমূলের অন্যান্য সভা-সমাবেশে বেশ কিছুদিন ধরেই দেখা যায়নি তাঁকে। তাহলে এবার কি এবার বিজেপিতে যোগদান করতে চলেছেন অভিনেত্রী? সে বিষয়ে এখনও বিস্তারিত জানা যায়নি।