ভারতের ৬ কিলোমিটার ভেতরে ৬০ বিল্ডিং বানিয়েছে চীন : এনডিটিভি

64
বিল্ডিং
Social Share

নতুন কিছু স্যাটেলাইট ছবিতে দেখা গেছে, ভারতের অরুণাচল রাজ্যের প্রায় ছয় কিলোমিটার ভেতরে অন্তত ৬০টি বিল্ডিং বানিয়েছে চীনারা। এতদিন এগুলোর অস্তিত্ব জানা ছিল না। বৃহস্পতিবার (১৮ নভেম্বর) এসব জানিয়েছে ভারতীয় এনডিটিভি।

প্রতিবেদনে বলা হয়, স্যাটেলাইট চিত্র অনুসারে ২০১৯ সালে নতুন এই বসতির অস্তিত্ব ছিল না, এখন তা দেখা যাচ্ছে। তবে অরুণাচলের সীমান্ত নিয়ে বিতর্ক আছে। এখানের কিছু অঞ্চলকে ভারত ও চীন উভয়ই নিজেদের বলে দাবি করে। এমনই এক এলাকায় এই বসতি দেখা গেছে।

এ বিষয়ে ভারতীয় সেনাবাহিনী বলেছে, ‘বসতিটির অবস্থান প্রকৃত নিয়ন্ত্রণ রেখার উত্তরে অবস্থিত।’ এর বেশি কিছু তারা বলেনি। তবে ভারতের ডিজিটাল মানচিত্রে দেখা গেছে স্থানটি ভারতের ভূমিতেই পড়েছে।

নতুন কিছু স্যাটেলাইট ছবিতে দেখা গেছে, ভারতের অরুণাচল রাজ্যের প্রায় ছয় কিলোমিটার ভেতরে অন্তত ৬০টি বিল্ডিং বানিয়েছে চীনারা। এতদিন এগুলোর অস্তিত্ব জানা ছিল না। বৃহস্পতিবার (১৮ নভেম্বর) এসব জানিয়েছে ভারতীয় এনডিটিভি।

প্রতিবেদনে বলা হয়, স্যাটেলাইট চিত্র অনুসারে ২০১৯ সালে নতুন এই বসতির অস্তিত্ব ছিল না, এখন তা দেখা যাচ্ছে। তবে অরুণাচলের সীমান্ত নিয়ে বিতর্ক আছে। এখানের কিছু অঞ্চলকে ভারত ও চীন উভয়ই নিজেদের বলে দাবি করে। এমনই এক এলাকায় এই বসতি দেখা গেছে।

এ বিষয়ে ভারতীয় সেনাবাহিনী বলেছে, ‘বসতিটির অবস্থান প্রকৃত নিয়ন্ত্রণ রেখার উত্তরে অবস্থিত।’ এর বেশি কিছু তারা বলেনি। তবে ভারতের ডিজিটাল মানচিত্রে দেখা গেছে স্থানটি ভারতের ভূমিতেই পড়েছে।

নতুন কিছু স্যাটেলাইট ছবিতে দেখা গেছে, ভারতের অরুণাচল রাজ্যের প্রায় ছয় কিলোমিটার ভেতরে অন্তত ৬০টি বিল্ডিং বানিয়েছে চীনারা। এতদিন এগুলোর অস্তিত্ব জানা ছিল না। বৃহস্পতিবার (১৮ নভেম্বর) এসব জানিয়েছে ভারতীয় এনডিটিভি।

প্রতিবেদনে বলা হয়, স্যাটেলাইট চিত্র অনুসারে ২০১৯ সালে নতুন এই বসতির অস্তিত্ব ছিল না, এখন তা দেখা যাচ্ছে। তবে অরুণাচলের সীমান্ত নিয়ে বিতর্ক আছে। এখানের কিছু অঞ্চলকে ভারত ও চীন উভয়ই নিজেদের বলে দাবি করে। এমনই এক এলাকায় এই বসতি দেখা গেছে।

এ বিষয়ে ভারতীয় সেনাবাহিনী বলেছে, ‘বসতিটির অবস্থান প্রকৃত নিয়ন্ত্রণ রেখার উত্তরে অবস্থিত।’ এর বেশি কিছু তারা বলেনি। তবে ভারতের ডিজিটাল মানচিত্রে দেখা গেছে স্থানটি ভারতের ভূমিতেই পড়েছে।