বিমানবন্দরে লজ্জায় মুখ ঢাকলেন রাজ!

101
বিমানবন্দরে
Social Share

পর্নকাণ্ডের পর এবার মুম্বই বিমানবন্দরে দেখা গেল রাজকে। পর্নকাণ্ডের পর থেকে খুব একটা প্রকাশ্যে দেখা যায়নি বলিউড অভিনেত্রী শিল্পা শেট্টির (Shilpa Shetty) স্বামী ব্যবসায়ী রাজ কুন্দ্রাকে (Raj Kundra)। কয়েকদিন আগে অবশ্য শিল্পার সঙ্গে মন্দিরে গিয়েছিলেন রাজ। সেই ছবিও ছড়িয়ে পড়েছিল সোশ্যাল মিডিয়ায়।

বুধবার দুপুর নাগাদ হঠাৎই শিল্পা শেট্টি ও রাজ কুন্দ্রা এসে হাজির মুম্বইয়ের বিমানবন্দরে। ভাইরাল হওয়া একটি ভিডিওতে দেখা গিয়েছে, গাড়ি থেকে নেমেই বিমান বন্দরের ভিতরে প্রায় দৌড়ে ঢুকে গেলেন রাজ। শুধু তাই নয়, ছবি শিকারিদের ক্যামেরার সামনে পড়তেই হুডি দিয়ে মুখ লুকিয়ে ফেললেন রাজ কুন্দ্রা। তবে শিল্পা শেট্টি কিন্তু ছিলেন একেবারে বিন্দাস। বুক উঁচিয়েই বিমানবন্দরে ভিতর ঢুকে গেলেন তিনি।

রাজ, শিল্পা

কোথায় যাচ্ছেন রাজ ও শিল্পা?

জানা গিয়েছে, এক আত্মীয়ের অনুষ্ঠানেই যোগ দিতে মুম্বই ছাড়লেন রাজ, শিল্পা। তবে ঠিক কোথায় যাচ্ছেন দম্পতি। তা কিন্তু গোপনই রেখেছেন তাঁরা।

গত জুলাই মাসে অনৈতিকভাবে পর্ন ফিল্ম ও ভিডিও তৈরির অভিযোগে গ্রেপ্তার করা হয় শিল্পা শেট্টির স্বামী রাজ কুন্দ্রাকে (Raj Kundra Case)। শোনা যায়, HotShots অ্যাপের মাধ্যমে নাকি এই পর্নোগ্রাফির ব্যবসা রমরমিয়ে চালাতেন রাজ ও তাঁর সঙ্গীরা। অ্যাপের যে স্ক্রিনশট ভাইরাল হয় তাতে ‘মিসিং কন্ডোম’, ‘গেট ডার্টি’, ‘বিকিনি যোগা’র মতো কনটেন্ট দেখা যায়। সূত্রের খবর মানলে, শর্ট ফিল্ম, HD ভিডিও, ফটোশুটের ভিডিও আপলোড করা হত। আবার লাস্যময়ী মডেলদের সঙ্গে নাকি লাইভ কমিউনিকেশন করার সুযোগও থাকতো।

পর্ন কাণ্ডে গ্রেপ্তারির প্রায় দু’মাস পর জামিন পান রাজ কুন্দ্রা। সেই সময় শোনা গিয়েছিল, স্বামীর সঙ্গে আর থাকছেন না শিল্পা। সম্পর্ক এতটাই তিক্ত হয়ে গিয়েছে, যে দুই সন্তানকে নিয়ে অন্য বাড়িতে থাকছেন অভিনেত্রী। শিল্পাও রাজের গ্রেপ্তারি বা জামিনের পর তাঁর সঙ্গে কোনও ছবি পোস্ট করেননি। বিবাহবার্ষিকীর দিন সমস্ত জল্পনার অবসান ঘটিয়ে অভিনেত্রী বুঝিয়ে দিলেন, সবরকম পরিস্থিতিতে তিনি স্বামীর পাশেই রয়েছেন।

রাজ

২০০৯ সালের ২২ নভেম্বর রাজ কুন্দ্রার সঙ্গে গাঁটছড়া বাঁধেন শিল্পা। সম্প্রতি সেই ছবি পোস্ট করে অভিনেত্রী লেখেন, “১২ বছরের আগের এই সেই দিন ও মুহূর্ত, যখন আমরা একে অপরকে কথা দিয়েছিলাম আর সেই কথা রেখে চলেছি। ভাল ও মন্দ, দুই ধরনের সময়ই ভাগ করে নিচ্ছি। ঈশ্বরের বিশ্বাস রেখে পাশাপাশি পথ চলছি, দিনের পর দিন। ১২ বছরের পর আর হিসেব রাখছি না… শুভ বিবাহবার্ষিকী কুকি। আরও অনেক রঙিন মুহূর্ত, হাসি বাকি হয়েছে। অনেক মাইলস্টোন ছুঁতে হবে। আমাদের সন্তানদের অনেক দায়িত্ব পালন করতে হবে। এতদিনের খারাপ ও ভাল সময়ে পাশে থাকার জন্য সুহৃদদের অনেক ধন্যবাদ।”

রাজ