বিএনপি না পারলেও বিশ্ব স্বাস্থ্যসংস্থা শেখ হাসিনাকে অভিনন্দন জানিয়েছে : তথ্যমন্ত্রী

18
Social Share

তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, করোনাভাইরাস মহামারি পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখার মধ্য দিয়ে কীভাবে সংকট মোকাবিলা করতে হয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সেটা বিশ্বকে দেখিয়ে দিয়েছেন। রবিবার (৩১ জানুয়ারি) জাতীয় সংসদে রাষ্ট্রপতির ভাষণের ওপর আনা ধন্যবাদ প্রস্তাবের আলোচনা সভায় অংশ নিয়ে তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ এ মন্তব্য করেন। এসময় স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী সভার সভাপতিত্ব করেন।

তথ্যমন্ত্রী বলেন, করোনার শুরুতে বলা হয়েছে, বাংলাদেশে হাজার হাজার মানুষ মারা যাবে। কিন্তু প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বিশ্বকে দেখিয়ে দিয়েছেন কীভাবে সংকট মোকাবিলা করতে হয়। পৃথিবীর কোনো দেশ করোনাভাইরাস মহামারি থেকে রক্ষা পায়নি। বাংলাদেশও রক্ষা পায়নি, কিন্তু নিয়ন্ত্রণে রাখতে পেরেছে। বিএনপি এই অর্জনের প্রশংসা করতে পারে না। কিন্তু বিএনপি প্রশংসা করতে না পারলেও বিশ্ব স্বাস্থ্যসংস্থা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে অভিনন্দন জানিয়েছে।

তিনি আরও বলেন, এই করোনা পরিস্থিতির মধ্যেও পৃথিবীতে জিডিপি গ্রোথ ধরে রাখতে বাংলাদেশ এক নম্বরে আছে। সরকার ৭ কোটি মানুষকে খাদ্য সহায়তা দিয়েছে। এই করোনা মহামারির মধ্যে নয়াপল্টনের অফিসে বসে অনেকে অনেক বড় বড় কথা বলেন। তারা এই পরিস্থিতিতে মানুষের পাশে দাঁড়াননি। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আহ্বানে সাড়া দিয়ে আওয়ামী লীগ ও এর সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছে। আওয়ামী লীগের ৮১ সদস্যের কেন্দ্রীয় কমিটির তিন জন করোনা আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন। এক তৃতীয়াংশ সংসদ সদস্য করোনা আক্রান্ত হয়েছেন, আবার তারা সুস্থ হয়ে মানুষের জন্য কাজে নেমে পড়েছেন।

তথ্যমন্ত্রী বলেন, করোনা মহামারির মধ্যে নয়াপল্টনের অফিসে বসে অনেকে অনেক বড় বড় কথা বলেন। তারা এই পরিস্থিতিতে মানুষের পাশে দাঁড়াননি। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আহ্বানে সাড়া দিয়ে আওয়ামী লীগ ও এর সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছে। আওয়ামী লীগের ৮১ সদস্যের কেন্দ্রীয় কমিটির তিন জন করোনা আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন। এক তৃতীয়াংশ সংসদ সদস্য করোনা আক্রান্ত হয়েছেন, আবার তারা সুস্থ হয়ে মানুষের জন্য কাজে নেমে পড়েছেন।

তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছেন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা শুধু দেশকে এগিয়ে নিতে চান না, দেশের নতুন প্রজন্মকে মেধায় সমৃদ্ধ করে এগিয়ে নিতে চান। শুধু বস্তুগত উন্নতি নয়, নতুন প্রজন্মের আত্মিক উন্নতিও তিনি ঘটাতে চান। এখন দেশে উন্নয়ন অর্জনে একটি নাম প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।