বাহুবলী ও বিগ বি এক স্ক্রিনে, সঙ্গে দীপিকাও

Social Share

দক্ষিণী সুপারস্টার প্রভাস এবং দীপিকা পাড়ুকোনের সঙ্গে স্ক্রিন শেয়ার করতে চলেছেন স্বয়ং ‘বিগ বি’।  অমিতাভ নিজেই এ দিন টুইটারের মাধ্যমে খবরটি জানিয়েছেন । কয়েক সেকেন্ডের একটি টিজার পোস্ট করে বিগ বি লিখেছেন, “এই গুরুত্বপূর্ণ এবং গৌরবময় ছবির অংশ হতে পেরে আমি সম্মানিত। বৈজয়ন্তী মুভিজের ৫০ বছর পূর্তিতে অনেক শুভেচ্ছা। আশা করি, এ রকম অনেক ৫০ বছর তাঁরা সাফল্যের সঙ্গে পার করবেন।” এই ছবির প্রযোজনার দায়িত্ব ‘বৈজয়ন্তী মুভিজ’-এর উপরে। পরিচালকের ভূমিকায় নাগ অশ্বিন।

টিজারটি মূলত ভারতের সব চেয়ে ‘দামি’ সুপারস্টারের প্রতি বৈজয়ন্তী মুভিজের শ্রদ্ধার্ঘ্য। সেখানে দেখা যায় অমিতাভ অভিনীত বিভিন্ন বিখ্যাত চরিত্রগুলির মন্তাজ। তার সঙ্গে লেখা– “স্বয়ং কিংবদন্তিকে ছাড়া কিংবদন্তি ছবি তৈরি হওয়া সম্ভব নয়। ” কার্যত নিজেদের ৫০ বছর পূর্তিকে চলচ্চিত্রের ইতিহাসে চিরস্মরণীয় করে রাখতেই দীপিকা, প্রভাস এবং অমিতাভের মতো অভিনেতাদের একসঙ্গে আনার এই প্রয়াস। অমিতাভের সঙ্গে কাজ করতে পেরে উচ্ছ্বসিত প্রভাস। নিজের ইনস্টাগ্রাম হ্যান্ডেলে টিজারটি শেয়ার করে লিখেছেন ‘স্বপ্ন সত্যি হওয়া’- র কথা। যদিও এ বিষয়ে এখনও চুপ দীপিকা।

এর আগে ২০১৫ সালে সুজিত সরকারের ‘পিকু’ ছবিতে বাবা-মেয়ের চরিত্রে দেখা গিয়েছে অমিতাভ-দীপিকা জুটিকে। এর পর এই ছবিতে ফের দেখা যাবে দুই সুপারস্টারকে। উপরি পাওনা হিসেবে থাকছেন ‘বাহুবলী’ প্রভাস।

জানা যাচ্ছে,  তৃতীয় বিশ্বযুদ্ধের প্রেক্ষাপটের উপর একটি সায়েন্স ফিকশনে অভিনয় করবে ত্রয়ী। কোভিড-১৯-এর জন্য সৃষ্ট পরিস্থিতি কিছুটা স্বাভাবিক হলেই শুরু করা হবে ছবির কাজ ।

বিগ-বি কে শেষ দেখা গিয়েছে আয়ুষ্মান খুরানার সঙ্গে ‘গুলাবো সিতাব’ ছবিতে। লকডাউনের জন্য ছবিটি ওটিটি প্ল্যাটফর্মে মুক্তি পায় পরিচালক সুজিত সরকারের এই ছবি। এর পর কোভিড আক্রান্ত হন অমিতাভ। তেইশ দিন পর করোনা জয় করে ফের কাজে নামেন ‘শাহেনশাহ’।