বাগেরহাটের কচুয়া উপজেলা চেয়ারম্যান আর নেই তার  মৃত্যুতে এমপি শেখ তন্ময় এর শোক

51
Social Share

মাসুম হাওলাদার, বাগেরহাট: বাগেরহাটের কচুয়া উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এস.এম. মাহফুজুর রহমান ইন্তেকাল করেছেন। বুধবার (৫মে) বিকেল ঢাকার একটি বেসরকারী হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান। তিনি ফুসফুসের সংক্রমণসহ নানান জটিলতায় ভুগছিলেন। ইন্না লিল্লাহি ……. রাজিউন। এস.এম. মাহফুজুর রহমান বাগেরহাট জেলা আওয়ামী লীগের নির্বাহী কমিটির সদস্য ও কচুয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব পালন করছিলেন। এর আগে তিনি দীর্ঘদিন কচুয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতিসহ বিভিন্ন দায়িত্বশীল পদে দায়িত্ব পালন করেছেন।২০০৩ সালে চার দলীয় জোট সরকারের সময়ে আওয়ামী লীগের নেতা কর্মী সমর্থকদের উপর প্রচন্ড নির্যাতন ও রাজনৈতিক সহিংসতা চলছিলো। সেই সময়েও ইউপি নির্বাচনে মাহফুজুর রহমান আতœগোপনে থেকে বাগেরহাট-২ আসনের সদর ও কচুয়া উপজেলার ১৭ টি ইউপির মধ্যে একমাত্র আওয়ামী লীগ দলীয় চেয়ারম্যান প্রার্থী হিসেবে রাড়িপাড়া ইউনিয়ন থেকে বিপুল ভোটে বিজয়ী হন।

এমপি শেখ তন্ময় বিভিন্ন মহলের শোক

৯৬ বাগেরহাট-২ (সদর-কচুয়া) সংসদীয় আসনের এমপি শেখ সারহান নাসের তন্ময় এস.এম.মাহফুজুর রহমানের মৃত্যুতে গভীর শোক ও সমবেদনা জ্ঞাপন করেছেন। তার একান্ত সহকারী এইচ.এম.শাহীনের মাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে তিনি বলেন, কচুয়া উপজেলা আওয়ামী লীগ একজন যোগ্য নেতাকে হারালো। বাগেরহাট আওয়ামীলীগ পরিবার হারালো একজন ত্যাগী, নিবেদিত ও সাহসী কর্মীকে। আমি, আমার পিতা ৯৫ বাগেরহাট-১ সংসদীয় আসনের এমপি শেখ হেলাল উদ্দিনসহ আমার পরিবার তাঁর মৃত্যুতে গভীরভাবে শোকাহত অনুরুপ শোক বিবৃতি দিয়েছেন বাগেরহাট-৩ আসনের এমপি ও উপমন্ত্রী হাবিবুন নাহার তালুকদার, বাগেরহাট-৪ আসনের এমপি এ্যাড. আমিরুল আলম মিলন, বাগেরহাট জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা শেখ কামরুজ্জামান টুকু, সাধারণ সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা এ্যাড. ভুইঞা হেমায়েত উদ্দিনসহ জেলা আওয়ামীলীগ, কচুয়া উপজেলা আওয়ামী লীগ ও বিভিন্ন সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ, বাগেরহাট পৌরসভার মেয়র খান হাবিবুর রহমান, বাগেরহাট সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান সরদার নাসির উদ্দিন, ভাইস চেয়ারম্যান খান রেজাউল ইসলাম ও রিজিয়া পারভীন, বাগেরহাট ফাউন্ডেশনের সাধারণ সম্পাদক আহাদ উদ্দিন হায়দার প্রমূখ।

শেখ তন্ময় এমপি তাঁর শোক বিবৃতিতে আরও বলেন, এস.এম. মাহফুজুর রহমান ৯০ দশক থেকে শুরু করে ২০০১ এর জামায়াত-বিএনপি জোট সরকারের দুঃশাসনকালের বিভিন্ন রাজনৈতিক সংকটে কচুয়া আওয়ামীলীগ ও এলাকার সাধারণ মানুষের পাশে থেকে দলের সাংগঠনিক কর্মকান্ড গতিশীল করাসহ মানুষের জান মালের নিরাপত্তা বিধানে সাহসী ভূমিকা রেখে গেছেন। আমি তাঁর শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি আমার ও আমার পরিবারের পক্ষ থেকে গভীর শোক ও সমবেদনা জানাচ্ছি। আল্লাহ্ রাব্বুল আল আমিন তাঁকে বেহেশত নসীব করুন ।কচুয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এসএম আবু বকর সিদ্দিক বলেন, কচুয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যানের মৃত্যুতে কচুয়াবাসীর অপূরণীয় ক্ষতি হয়ে গেলে। দল ও এলাকাবাসীর যেকোন দুঃসময়ে তিনি সবার পাশে থাকতেন। একরম জনদরদী রাজনীতিবীদের মৃত্যু আমাদের খুব ব্যাথিত করেছে। আমরা মরহুমের রুহের মাগফেরাত কামনা করি। তার পরিবারের সকলের সুস্থ্যতা কামনা করছি।