‘বঙ্গবন্ধু স্বাধীনতা এনেছেন, অর্থনৈতিক মুক্তি দিয়েছেন শেখ হাসিনা’

তোফায়েল আহমেদ। ছবি: সংগৃহীত
Social Share

করোনাকালীন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পদক্ষেপ আন্তর্জাতিকভাবে প্রশংসিত হয়েছে বলে উল্লেখ করেন আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য ও সাবেক মন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ। তিনি বলেন, শীতকে সামনে রেখে এখন থেকে সকলকে কঠোরভাবে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে হবে।

শনিবার দুপুরে ভোলার সদর উপজেলার উত্তর দিঘলদী ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন। ঢাকা থেকে তিনি ভার্চুয়ালি যুক্ত হন।

তোফায়েল আহমেদ বলেন, বঙ্গবন্ধুর দুটি স্বপ্ন ছিলে বাংলাদেশের স্বাধীনতা ও অর্থনৈতিক মুক্তি। কিন্তু তিনি স্বাধীনতা এনে দিয়ে গেছেন। আর অর্থনৈতিক মুক্তি দিয়েছেন শেখ হাসিনা। তার নেত্রেতে আজ বাংলাদেশ দুর্বার গতিতে এগিয়ে চলছে। দেশের উন্নয়নের জন্য বড় বড় প্রকল্প বাস্তবায়ন করছেন। পদ্মা সেতুর নির্মাণ করার পাশাপাশি ভোলা-বরিশাল সেতু নির্মাণ করবেন। এর মাধ্যমে ভোলার সাথে রাজধানীসহ দক্ষিণাঞ্চলের যোগাযোগ ব্যবস্থা আরো উন্নত হবে।

তিনি আরো বলেন, প্রধানমন্ত্রী নির্দেশে আমরা করোনার সময়ে মানুষের বাড়ি বাড়ি গিয়ে খাদ্য পৌঁছে দিয়েছে। আমার নিজস্ব তহবিল থেকে ঈমাম থেকে শুরু করে সকল শ্রেণি পেশার মানুষের জন্য ৪০ হাজার খাদ্য প্রদান করেছি। দারিদ্র্যতা দূর করার জন্য আমরা বিভিন্ন পদক্ষেপ গ্রহণ করেছি। বয়স্ক ভাতা,বিধবা ভাতা থেকে শুরু করে প্রতিবন্ধী ভাতা প্রদান

তোফায়েল আহমেদ বলেন, প্রধানমন্ত্রী বলেছেন বঙ্গবন্ধুর জন্মশত বার্ষিকেতে যাদের বাড়িঘর নাই তারা কেউ আশ্রয়হীন থাকবে না। তাই ভোলাতে যাদের বাড়িঘর নাই তাদেরকে গৃহ নির্মাণ করে দিবেন।

তিনি আরো বলেন, বাংলাদেশকে এখন অনেক দেশ অনুসরণ করে। আমাদের মাথাপিছু আয় এখন ভারতের চেয়ে বেশি। পাকিস্তানের থেকে সকল সূচকে আমাদের দেশ এগিয়ে আছে। প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে আগামীতে দক্ষিণ এশিয়ার মধ্যে অন্যতম রোল মডেল রাষ্ট্রে পরিণত হবে বাংলাদেশ।