‘বঙ্গবন্ধু সামরিক জাদুঘর মাইলফলক হয়ে থাকবে’

69
জাদুঘর
Social Share

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, বঙ্গবন্ধু সামরিক জাদুঘর সশস্ত্র বাহিনীর জন্য একটা মাইলফলক হয়ে থাকবে। মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস এবং আমাদের তিন বাহিনী সম্পর্কে আমাদের তরুণ প্রজন্ম উদ্বুদ্ধ হবে, সম্যক জ্ঞান পাবে। মুক্তিযুদ্ধে অংশগ্রহণকারীসহ সশস্ত্র বাহিনীর সাবেক ও বর্তমান সদস্যদের মধ্যে একটি প্রেরণা আসবে। তারা তৃপ্ত হবেন।

আজ বৃহস্পতিবার সকালে রাজধানীর বিজয় সরণিতে বঙ্গবন্ধু সামরিক জাদুঘরের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন সরকারপ্রধান। গণভবন প্রান্ত থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে যুক্ত হয়েছিলেন তিনি। 

তিনি বলেন, জাদুঘর শুধু প্রদর্শনীর জন্য না, এটা দেখে আমাদের তরুণ প্রজন্ম দেশপ্রেমে জাগ্রত হয়ে সশস্ত্র বাহিনীতে যোগদান করতে আগ্রহী হবে।

এ সময় আওয়ামী লীগকে বারবার নির্বাচিত করার জন্য দেশবাসীকে ধন্যবাদ জানান শেখ হাসিনা। তিনি বলেন, আমরা দীর্ঘসময় ক্ষমতায় থাকার কারণে কেবল দেশের উন্নয়ন নয় বাংলাদেশকে উন্নয়নশীল দেশের মর্যাদায় উন্নীত করতে সক্ষম হয়েছি। ইশতেহারের ঘোষণা অনুযায়ী, সুনির্দিষ্টভাবে কাজ করার কারণেই এটা সম্ভব হয়েছে।

…………………………………………………………………………………………………

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, বঙ্গবন্ধু সামরিক জাদুঘর সশস্ত্র বাহিনীর জন্য একটা মাইলফলক হয়ে থাকবে। মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস এবং আমাদের তিন বাহিনী সম্পর্কে আমাদের তরুণ প্রজন্ম উদ্বুদ্ধ হবে, সম্যক জ্ঞান পাবে। মুক্তিযুদ্ধে অংশগ্রহণকারীসহ সশস্ত্র বাহিনীর সাবেক ও বর্তমান সদস্যদের মধ্যে একটি প্রেরণা আসবে। তারা তৃপ্ত হবেন।

আজ বৃহস্পতিবার সকালে রাজধানীর বিজয় সরণিতে বঙ্গবন্ধু সামরিক জাদুঘরের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন সরকারপ্রধান। গণভবন প্রান্ত থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে যুক্ত হয়েছিলেন তিনি। 

তিনি বলেন, জাদুঘর শুধু প্রদর্শনীর জন্য না, এটা দেখে আমাদের তরুণ প্রজন্ম দেশপ্রেমে জাগ্রত হয়ে সশস্ত্র বাহিনীতে যোগদান করতে আগ্রহী হবে।

এ সময় আওয়ামী লীগকে বারবার নির্বাচিত করার জন্য দেশবাসীকে ধন্যবাদ জানান শেখ হাসিনা। তিনি বলেন, আমরা দীর্ঘসময় ক্ষমতায় থাকার কারণে কেবল দেশের উন্নয়ন নয় বাংলাদেশকে উন্নয়নশীল দেশের মর্যাদায় উন্নীত করতে সক্ষম হয়েছি। ইশতেহারের ঘোষণা অনুযায়ী, সুনির্দিষ্টভাবে কাজ করার কারণেই এটা সম্ভব হয়েছে।

এ সময় আওয়ামী লীগকে বারবার নির্বাচিত করার জন্য দেশবাসীকে ধন্যবাদ জানান শেখ হাসিনা। তিনি বলেন, আমরা দীর্ঘসময় ক্ষমতায় থাকার কারণে কেবল দেশের উন্নয়ন নয় বাংলাদেশকে উন্নয়নশীল দেশের মর্যাদায় উন্নীত করতে সক্ষম হয়েছি। ইশতেহারের ঘোষণা অনুযায়ী, সুনির্দিষ্টভাবে কাজ করার কারণেই এটা সম্ভব হয়েছে।