ফেসবুকের ভিডিও কলে যুক্ত হতে পারবেন ৫০ জন

প্রতীকী ছবি।
Social Share

করোনা ভাইরাসে প্রায় পুরো বিশ্বজুড়ে চলছে লকডাউন। আর এতে ঘরবন্দি হয়ে পড়েছে মানুষ। ফলে বেড়েছে সামাজিক দূরত্ব। এবার সেই সামাজিক দূরত্ব ঘুচাতে সর্বোচ্চ ৫০ জনের সঙ্গে ভিডিও চ্যাট করার সুযোগ করে দিলো বিশ্বের জনপ্রিয় সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুক। শুক্রবার ফেসবুকের পক্ষ থেকে ম্যাসেঞ্জার রুমস নামের একটি ফিচার উদ্বোধন করা হয়। যেখানে একসঙ্গে ৫০ জনের সাথে ভিডিও কলে সংযুক্ত হওয়া যাবে।

সংবাদমাধ্যম সিএনবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়, ফেসবুক এবং মেসেঞ্জার ব্যবহারকারীরা এখন থেকে আলাদা মেসেঞ্জার রুম ব্যবহার করতে পারবেন। সেখানে তারা সর্বোচ্চ ৫০ জন মানুষের সঙ্গে ভিডিও কলে সংযুক্ত হতে পারবেন। ফেসবুক মেসেঞ্জারে এখন সর্বোচ্চ আট জনের সঙ্গে ভিডিও কলে সংযুক্ত হওয়া যায়। নতুন ফিচারের সম্পর্কে ফেসবুকের পক্ষ থেকে বলা হয়, এর মাধ্যমে এই কোয়ারেন্টাইন সময়ে ব্যবহারকারীরা তাদের বন্ধু এবং আত্মীয়-স্বজনের সঙ্গে আরো বেশি যোগাযোগ স্থাপন করতে পারবেন। শুধু ম্যাসেঞ্জার নয়, পরবর্তীতে এই সুবিধা ফেইসবুকের মালিকানাধীন হোয়াটসঅ্যাপ ও ইনস্টাগ্রাম ডাইরেক্টেও যুক্ত হবে।

জানা গেছ, ফেসবুক অ্যাকাউন্ট না থাকলে ভিডিও চ্যাটের লিঙ্ক পাঠিয়ে তাদেরকে গ্রুপ চ্যাটে ইনভাইট করা যাবে। ফিচারটি সব ব্যবহারকারীর কাছে পৌঁছাতে কয়েক সপ্তাহ লাগবে।

এ বিষয়ে ফেসবুকের পক্ষ থেকে বলা হয়, মেসেঞ্জার এবং হোয়াটসঅ্যাপে প্রতিদিন ৭০ কোটি মানুষ ভিডিও কলে যোগাযোগ করে। কিছু কিছু দেশে মেসেঞ্জারের চেয়ে হোয়াটসঅ্যাপ বেশি জনপ্রিয়।

এদিকে করোনাকালে লকডাউনের মধ্যে ভিডিও কনফারেন্সিং অ্যাপ হিসেবে জনপ্রিয়তা পায় জুম এবং হাউজপার্টি। জানা গেছে, জুমে এক সঙ্গে ১০০ জনের সঙ্গে ভিডিও কনফারেন্সে সংযুক্ত হওয়া যায়। আর হাউজপার্টি অ্যাপে আট জনের সঙ্গে ভিডিও চ্যাট করা যায়। যদিও এই অ্যাপসগুলোর নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিয়ে আপত্তি করেছেন বিশেষজ্ঞরা।