‘প্রান্তিক কৃষকের কাছে প্রণোদনার সুফল পৌঁছে দিতে হবে’

44
Social Share

খাদ্যমন্ত্রী সাধন চন্দ্র মজুমদার বলেছেন, সরকারের যুগোপযোগী পরিকল্পনার কারণেই কৃষক ফসলের নায্যমূল্য পাচ্ছেন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কৃষকের জন্য বিভিন্ন প্রণোদনা দিচ্ছেন উল্লেখ করে তিনি বলেন, প্রান্তিক কৃষকের কাছে প্রণোদনার সুফল পৌঁছে দিতে হবে।

আজ ময়মনসিংহে ‘সারাদেশে পুরাতন খাদ্য গুদাম ও আনুষঙ্গিক সুবিধাদির মেরামত এবং নতুন অবকাঠামো নির্মাণ’ শীর্ষক প্রকল্পের আওতায় ময়মনসিংহ সিএসডিতে নির্মিত অফিস ভবন উদ্বোধন এবং চলমান ধান ও চাল সংগ্রহ অভিযান নিয়ে আয়োজিত মতবিনিময় অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এসব কথা বলেন।

মন্ত্রী বলেন, দেশে এবছর পর্যাপ্ত ফসল উৎপাদন হয়েছে। কৃষকের ফসলের নায্যমূল্য নিশ্চিত করতে তিনি প্রান্তিক কৃষকের কাছ থেকে ধান সংগ্রহের নির্দেশনা দেন। তিনি বলেন, দেশে খাদ্য শস্য মজুদ এই মুহূর্তে প্রায় ১০ লাখ মেট্রিক টন। মজুদের পরিমাণ বাড়াতে মন্ত্রী চলমান সংগ্রহ অভিযান জোরদার করতে খাদ্য বিভাগের কর্মকর্তাদের নিবিড় তদারকির নির্দেশনা দেন।

সাধন চন্দ্র মজুমদার বলেন, সরকার দেশের মানুষের খাদ্য নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে কাজ করছে। অসাধুচক্র খাদ্য শষ্য মজুদের চেষ্টা করলে তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে। এসময় তিনি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়তে সকলকে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করার আহ্বান জানান।

খাদ্য অধিদপ্তেরর মহাপরিচালক শেখ মুজিবুর রহমান এর সভাপতিত্বে মন্ত্রণালয়ের সচিব ড. মোছাম্মৎ নাজমানারা খানুম, জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ এনামুল হক, পুলিশ সুপার মোহা. আহমার উজ্জামান, জেলা পরিষদের প্রসাশক ইউসুফ খান পাঠান ও স্থানীয় আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দ অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন।

এর আগে খাদ্যমন্ত্রী সিএসডির আধুনিক স্টিল সাইলো নির্মাণ প্রকল্পের কাজের অগ্রগতি পরিদর্শন করেন এবং নবনির্মিত সিএসডির অফিস ভবনের উদ্বোধন করেন। পরে তিনি অফিস চত্ত্বরে একটি গাছের চারা রোপণ করেন।

উল্লেখ্য, প্রায় ২ কোটি টাকা ব্যয়ে এ অফিস ভবন নির্মাণের কাজ মে মাসে শেষ হয়।