প্রথমবার শ্রীলঙ্কাকে ধোলাই করল প্রোটিয়ারা

টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে প্রথমবারের মত শ্রীলঙ্কাকে হোয়াইটওয়াশ করল দক্ষিণ আফ্রিকা। গতরাতে সিরিজের তৃতীয় ও শেষ ম্যাচে প্রোটিয়ারা বৃষ্টি আইনে ৪৫ রানে হারায় লঙ্কানদের। ফলে তিন ম্যাচের সিরিজ ৩-০ ব্যবধানে জিতে নেয় স্বাগতিক দল। সফরে দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজ ২-০ ব্যবধানে জিতেছিল শ্রীলঙ্কা। কিন্তু পাঁচ ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ ৫-০ ব্যবধানে জিতে নেয় দক্ষিণ আফ্রিকা। জোহানেসবার্গে টস জিতে প্রথমে ফিল্ডিং করতে নামে শ্রীলঙ্কা। নামের পাশে ১৫ রান রেখে প্রথম ব্যাটম্যান হিসেবে সাজঘরে ফিরেন ওপেনার এইডেন মার্করাম। তবে দ্বিতীয় উইকেটে দুর্দান্ত একটি জুটি গড়েন রেজা হেনড্রিক্স ও ডোয়াইন প্রিটোরিয়াস। মারমুখী মেজাজেই রান তুলেন তারা। এতে দলীয় স্কোর শতরানে পৌছে যায়। এসময় হাফ-সেঞ্চুরির স্বাদ নেন দুজনই। ৫২ বলে ৮টি চার ও ২টি ছক্কায় ৬৬ রান করে আউট হন হেনড্রিক্স। প্রিটোরিয়াসের সাথে ৫৫ বলে ৯০ রান যোগ করেন হেনড্রিক্স। দলকে বড় সংগ্রহ দিয়েই মাঠ ছাড়েন প্রিটোরিয়াস। ৪২ বলে ৭টি চার ও ৩টি ছক্কায় অপরাজিত ৭৭ রান করেন। তার সঙ্গী অধিনায়ক জেপি ডুমিনি ১৪ বলে ঝড়ো ৩৪ রান করেন। তার ইনিংসে ২টি চার ও ৩টি ছক্কা ছিল। তৃতীয় উইকেটে ৩০ বলে অপরাজিত ৭১ রান করেন প্রিটোরিয়াস ও ডুমিনি। ২০ ওভারে ২ উইকেটে ১৯৮ রানের সংগ্রহ পায় দক্ষিণ আফ্রিকা। জবাবে ১৯৮ রানের লক্ষ্যে ব্যাটসম্যানদের ব্যর্থতায় ১১.১ ওভারে ৬ উইকেটে ১১১ রান তুললে পরাজয় প্রায় নিশ্চিত হয় শ্রীলঙ্কার। এরপর বৃষ্টি নামলে ১৭ ওভারে জয়ের জন্য ১৮৩ রানের টার্গেট পায় তারা। অর্থাৎ ওই সময় ৩৫ বলে ৭২ রান দরকার ছিল শ্রীলঙ্কার। কিন্তু তারা গুটিয়ে যায় ১৩৭ রানে। ওপেনার নিরোশান ডিকাভিলা ২২ বলে ৩৮ ও ইসুরু উদানা ২৩ বলে ৩৬ রান করেন। দক্ষিণ আফ্রিকার আন্দিলে ফেলুকুওয়াও ২৪ রানে ৪ উইকেট নেন। ম্যাচ সেরা হয়েছেন দক্ষিণ আফ্রিকার ডোয়াইন প্রিটোরিয়াস ও সিরিজ সেরা হন রেজা হেনড্রিক্স।