প্রথমবার টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে পাপুয়া নিউ গিনি

আগামী বছর অস্ট্রেলিয়ায় অনুষ্ঠিতব্য টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে জায়গা করে নিয়েছে পাপুয়া নিউ গিনি। প্রথমবারের মতো টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ খেলবে অচেনা দলটি। আজ বিশ্বকাপ বাছাইপর্বে নিজেদের শেষ ম্যাচে কেনিয়াকে ৪৫ রানে হারায় পাপুয়া নিউ গিনি। অবশ্য এতেই তাদের বিশ্বকাপ খেলা নিশ্চিত হয়নি। তাদেরকে ‘সহায়তা’ করেছে নিউজিল্যান্ড আর স্কটল্যান্ডও। যাতে দলটি বাছাই পর্বে ‘এ’ গ্রুপের সেরা হিসেবেও নিজেদের প্রতিষ্ঠিত করেছে।

কেনিয়ার বিপক্ষে টস হেরে ব্যাট করতে নেমে ১১৮ রানে অল-আউট হয়ে যায় পাপুয়া নিউ গিনি। মাত্র ১৯ রানে ৬ উইকেট হারিয়ে চরম ব্যাটিং বিপর্যয়ে পড়া দলকে লড়াই করার মতো পুঁজি এনে দেন নরম্যান ভানুয়া। ৩ চার ও ২ ছক্কায় ৫৪ রান করেন তিনি। ছোট লক্ষ্য তাড়ায় নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারাতে থাকে কেনিয়া। মাত্র ২৮ রানের মধ্যে তাদের শেষ ৭ ব্যাটসম্যন প্যাভিলিয়নে ফিরেন। একসময়ের সম্ভাবনাময় দলটি গুটিয়ে যায় মাত্র ৭৩ রানে।

এদিকে গ্রুপের আরেক ম্যাচে স্কটল্যান্ডের বিপক্ষে ১৩১ রানের লক্ষ্য নেদারল্যান্ডস ১২.৩ ওভারে ছুঁয়ে ফেললে কপাল পুড়ত পাপুয়া নিউ গিনির। সেক্ষেত্রে নেদারল্যান্ডসই বিশ্বকাপে জায়গা করে নিত। স্কটল্যান্ডের বিপক্ষে প্রয়োজনীয় ১৩১ রান তুলতে ১৭ ওভার খেলতে হয় নেদারল্যান্ডসকে। এতেই নিশ্চিত হয় পাপুয়া নিউ গিনি বিশ্বকাপ। একই দিনে ‘বি’ গ্রুপে জার্সির বিপক্ষে নিজেদের শেষ ম্যাচে ১৪ রানে হেরে বিশ্বকাপ খেলার অপেক্ষা বেড়েছে ওমানের।