প্রতিজ্ঞা করছি, সুখে দুঃখে পাশে থাকবো : ইশরাক

ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের বিএনপি মনোনীত প্রার্থী ইঞ্জিনিয়ার ইশরাক হোসেন এলাকাবাসীদের উদ্দেশ্যে বলেছেন, প্রতিজ্ঞা করছি, সুখে দুঃখে আপনাদের পাশে থাকবো।

আজ মঙ্গলবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে রাজধানীর খিলগাঁও এলাকার ত্রিমোহনী বাজারে সাংবাদিকদের তিনি এসব কথা বলেন। এরপর তিনি গণসংযোগ শুরু করেন।

ইশরাক বলেন, গত ১৩ বছরে দেশকে তিলে তিলে ধ্বংস করে ফেলা হয়েছে। দেশে কোনো গণতন্ত্র নেই, কারো কথা বলার অধিকার নেই। উন্নয়নের নামে ধোয়া তোলা হচ্ছে কিন্তু আমরা কোনো উন্নয়ন দেখতে পাচ্ছি না। ঢাকা আজকে সবচেয়ে দূষিত ও বসবাসের অযোগ্য শহরের তালিকায় ১ নম্বরে আসে। এই এলাকায় আসার সময় দুই পাশের যে জলাশয়, রাস্তা-ঘাটের করুণ দশা দেখেছি, তা দেখে সত্যিই খারাপ লেগেছে। এই সরকার বলে তারা উন্নয়ন করেছে, স্যাটেলাইট পাঠাচ্ছে, অমুক সেতু, তমুক সেতু। কিন্তু এগুলো সবই আসলে দুর্নীতির প্রজেক্ট। মেগা প্রজেক্ট তারা করছে, সেখান থেকে লক্ষ হাজার কোটি টাকা বিদেশে পাচার করে আরাম আয়েশে তারা ফুর্তি করছে। আর বাংলাদেশের আমরা যারা সাধারণ জনগণ, নাগরিকরা রয়েছি, তাদের দিন দিন দুরদশা বেড়েই চলেছে।

তিনি বলেন, আমি আপনারদের কাছে প্রতিজ্ঞা করতে চাই, আগামী ৩০ তারিখে যদি আমাকে ভোট দিয়ে নির্বাচিত করেন, সেখান থেকে আমরা আপনাদের অধিকার রক্ষার আন্দোলনে আমরা রয়েছি, সেটাকে চুড়ান্ত পর্যায়ে পৌঁছানোর জন্য কাজ করবো। এবং আপনাদের কাছে প্রতিজ্ঞা করছি, আপনাদের সুখে দুঃখে সব সময় পাশে থাকবো।

তিনি বলেন, সিটি নির্বাচন আমি ইশরাক হোসেনের লড়াই নয়, এটা ধানের শীষের লড়াই, জনগনের লড়াই, গণতন্ত্রের লড়াই। আপনারা সেই লড়াইয়ে শরিক হবেন।

গণসংযোগে বিএনপি’র যুগ্ম মহাসচিব খায়রুল কবির খোকন, মহিলা দলের সভাপতি আফরোজা আব্বাস সহ স্থানীয় বিএনপি’র নেতা, ছাত্রদল, যুবোদল, মহিলাদল, সেচ্ছাসেবক দল সহ হাজার হাজার নেতা-কর্মী উপস্থিত হয়। গণসংযোগে এলাকাবাসীর সঙ্গে কুশলবিনিময়, ভোট ও দোয়া প্রার্থনা করেন।