প্রকাশ্য সভামঞ্চে মেজাজ হারালেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

13
Social Share

ভারতের বিধানসভা নির্বাচনের আগে সরগরম রাজ্য রাজনীতি। একের পর নেতা, সাংসদদের দলত্যাগে চাপের মুখে রাজ্যের শাসকদল তৃণমূল। এবার পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সভায় বলতে উঠতেই দাবি-দেওয়া নিয়ে সরব হন সাধারণ মানুষ। তাতেই মেজাজ হারান মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee)। বৃহস্পতিবার কসবার গীতাঞ্জলি স্টেডিয়ামে (Gitanjali Stadium) তফশিলি জাতি-উপজাতির সম্মেলন ছিল।

এদিন সভায় মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ভাষণ শুরু করতেই কেউ কেউ উঠে দাঁড়ান। দু’‌জন কথা বলতে এগিয়ে যান। ব্যারিকেড পেরিয়ে এগিয়ে আসার চেষ্টা করেন তারা। ক্ষেপে যান মুখ্যমন্ত্রী। বক্তব্য রাখার আগেই দর্শকাসন থেকে উড়ে আসে নানা দাবি–দাওয়া। আর তাতেই ক্ষোভ উগরে দেন তিনি। অভিযোগ করেন, বিজেপি–সিপিএমের কথা শুনে অকারণে এমন করছে তারা।

মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ‌৪ থেকে ৫ দিন পরই ভোটের দিন ঘোষণা হবে। এখন এত চাইলে হবে না। বিজেপি আর সিপিএম লোকের কথা শুনে এরকম করে কোনও লাভ নেই। ভোটের আগে ব্ল্যাকমেল করবেন না।

মুখ্যমন্ত্রীর প্রশ্ন, কি দেওয়া হয়নি বলুন তো? সবুজসাথী, কন্যাশ্রী, স্বাস্থ্যসাথী, বিনামূল্যে রেশন থেকে সব সুবিধাই পাচ্ছে রাজ্যবাসী। এরপরও ভোটের আগে চাওয়া হচ্ছে? আমাকে যদি পছন্দ না হয়, তাহলে আমায় ভোট দেবেন না। বাকিদের ভোটেই সরকার গঠন করবো।

রাজনৈতিক মহলের একাংশের মতে, একের পর নেতা, সাংসদদের দলত্যাগে পায়ের তলার মাটি হারাচ্ছে তৃণমূল শিবির। তাই বিধানসভা নির্বাচনের চাপে মেজাজ হারান মমতা। সূত্র: কোলকাতা ট্রিবিউন