পেঁপের হালুয়া তৈরির রেসিপি

1968
Social Share

পেঁপের হালুয়া – শবেবরাতে হালুয়া-রুটি খাওয়া বহুদিন ধরে আমাদের সংস্কৃতির অংশ। এর কিছু ঐতিহাসিক কারণ আছে বলেও মনে করেন ইতিহাসবিদরা। কারো মতে, আগে এখনকার মতো মুসাফির যাত্রীদের থাকার জন্য আবাসিক হোটেলের ব্যবস্থা ছিল না। তখন পথচারীদের বিশ্রামের জন্য ছিল সরাইখানা বা মুসাফিরখানা।

সফর অবস্থায় মানুষ সেখানে রাত যাপন করত। কোনো কোনো মুসাফির পবিত্র শবেবরাতে ইবাদত-বন্দেগিতে কাটিয়ে পরের দিন রোজা রাখতেন। তাঁদের জন্য একটু ভালো খাবারের আয়োজনে স্থানীয় লোকজন হালুয়া-রুটি বা গোশত-রুটির ব্যবস্থা করত। হালুয়া -রুটির প্রচলন এভাবেই শুরু হয়েছে বলে মনে করেন অনেকে। আবার কারো মতে, মিষ্টি খাওয়া সুন্নত মেনে অনেকে হালুয়া তৈরি করত। এবার এমন হালুয়ার রেসিপি দিয়েছেন তাসনিয়া রহমান সৃষ্টি।

পেঁপের হালুয়া

উপকরণ

পেঁপে গ্রেট করা আধাকেজি, চিনি আধাকাপ, ঘি ১ টেবিল চামচ, দারচিনি ১ টুকরা, বাদামকুচি সাজানোর জন্য এবং মাওয়া পরিমাণমতো।

কিভাবে তৈরি করবেন

১.   পেঁপে পাঁচ মিনিট সিদ্ধ করে পানি ফেলে দিন।

২.   এবার পাত্রে ঘি গরম করে পেঁপে ভেজে নিন। এরপর ঘি, চিনি ও দারচিনি দিয়ে ভাজা ভাজা করে নিন।

৩.   নামিয়ে বাদামকুচি ও মাওয়া দিয়ে পরিবেশন করুন।

…………………………………………………………………………………………………………

পেঁপের হালুয়া – শবেবরাতে হালুয়া-রুটি খাওয়া বহুদিন ধরে আমাদের সংস্কৃতির অংশ। এর কিছু ঐতিহাসিক কারণ আছে বলেও মনে করেন ইতিহাসবিদরা। কারো মতে, আগে এখনকার মতো মুসাফির যাত্রীদের থাকার জন্য আবাসিক হোটেলের ব্যবস্থা ছিল না। তখন পথচারীদের বিশ্রামের জন্য ছিল সরাইখানা বা মুসাফিরখানা।

সফর অবস্থায় মানুষ সেখানে রাত যাপন করত। কোনো কোনো মুসাফির পবিত্র শবেবরাতে ইবাদত-বন্দেগিতে কাটিয়ে পরের দিন রোজা রাখতেন। তাঁদের জন্য একটু ভালো খাবারের আয়োজনে স্থানীয় লোকজন হালুয়া-রুটি বা গোশত-রুটির ব্যবস্থা করত। হালুয়া -রুটির প্রচলন এভাবেই শুরু হয়েছে বলে মনে করেন অনেকে। আবার কারো মতে, মিষ্টি খাওয়া সুন্নত মেনে অনেকে হালুয়া তৈরি করত। এবার এমন হালুয়ার রেসিপি দিয়েছেন তাসনিয়া রহমান সৃষ্টি।

পেঁপের হালুয়া

উপকরণ

পেঁপে গ্রেট করা আধাকেজি, চিনি আধাকাপ, ঘি ১ টেবিল চামচ, দারচিনি ১ টুকরা, বাদামকুচি সাজানোর জন্য এবং মাওয়া পরিমাণমতো।

কিভাবে তৈরি করবেন

১.   পেঁপে পাঁচ মিনিট সিদ্ধ করে পানি ফেলে দিন

২.   এবার পাত্রে ঘি গরম করে পেঁপে ভেজে নিন। এরপর ঘি, চিনি ও দারচিনি দিয়ে ভাজা ভাজা করে নিন।

৩.   নামিয়ে বাদামকুচি ও মাওয়া দিয়ে পরিবেশন করুন।