পুরুষাঙ্গচ্ছেদ থেকে শুরু করে জনসম্মুখে ধর্ষকের শিরশ্ছেদ; জেনে নিন কোন দেশে ধর্ষণের সাজা কি?

Social Share

কলকাতা: প্রতিদিনই ধর্ষণের ঘটনা সামনে আসছে। মারাত্মক এই ব্যাধি নিয়ে তোলপাড় গোটা পৃথিবী। একের পর এক ধর্ষণের ঘটনায় সারা দেশ রাগে-ক্ষোভে ফুঁসছে এখন। প্রত্যেকটি দেশেই ধর্ষকদের কঠোর শাস্তির বিধান আছে। তারপরও এ অপরাধ পৃথিবীর অনেক দেশেই মহামরির আকার ধারণ করেছে। সম্প্রতি ভারতে ধর্ষণের ঘটনা বহুগুণে বেড়ে গেছে। আমাদের দেশে ধর্ষণের সর্বোচ্চ শাস্তি মৃত্যুদণ্ড। ইরান, চিন, গ্রিস, রাশিয়া-সহ এশিয়া-ইউরোপের বিভিন্ন দেশে ধর্ষণের সর্বোচ্চ শাস্তি মৃত্যুদণ্ড।

পৃথিবীর কয়েকটি দেশে ধর্ষণের সাজা কি তা জেনে নেওয়া যাক:

১. গ্রিস: ধর্ষণের অভিযোগ প্রমাণিত হলে মৃত্যুদণ্ড দেওয়া হয়। আর এই শাস্তি কার্যকর করা হয় আগুনে পুড়িয়ে।

২. সংযুক্ত আরব আমিরাত: যদি কারও বিরুদ্ধে ধর্ষণের অপরাধ প্রমাণিত হয়, তাহলে সাত দিনের মধ্যে মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করা হয়।

৩. চিন: চিনে ধর্ষণের সর্বোচ্চ শাস্তি মৃত্যুদণ্ড। তবে কিছু কিছু ক্ষেত্রে পরিস্থিতির গুরুত্ব বিবেচনায় ধর্ষকের যৌনাঙ্গ কেটে দেওয়া হয়।

৪. ফ্রান্স: ধর্ষণের শাস্তি ১৫ বছরের কারাদণ্ড। তবে নৃশংসতার বিচারে তা ৩০ বছর পর্যন্ত বা যাবজ্জীবন কারাদণ্ডও হতে পারে।

৫. ইরান: ধর্ষককে জনসম্মুখে ফাঁসিতে ঝুলিয়ে অথবা গুলি করে মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করা হয়। কোনও কোনও ক্ষেত্রে ধর্ষিতার অনুমতি নিয়ে ধর্ষককে জনসম্মুখে ১০০ দোররা (চাবুক) মারা অথবা যাবজ্জীবন কারাদণ্ড।

৬. সৌদি আরব: ধর্ষণের অপরাধ প্রমাণিত হলে শাস্তি প্রকাশ্যে শিরশ্ছেদ।

৭. মিসর: জনাকীর্ণ এলাকায় জনসম্মুখে ফাঁসিতে ঝুলিয়ে মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করা হয়।

৮. উত্তর কোরিয়া: উত্তর কোরিয়ায় ধর্ষণের শাস্তি মৃত্যুদণ্ড। ধর্ষককে ফায়ারিং স্কোয়াডে নিয়ে মাথায় গুলি করে এই শাস্তি কার্যকর করা হয়।

৯. আফগানিস্তান: আফগানিস্তানে ধর্ষণের শাস্তি মৃত্যুদণ্ড। আদালতের রায়ের চার দিনের মধ্যে ধর্ষকের মাথায় গুলি করে এই রায় কার্যকর করা হয়।

১০. নেদারল্যান্ডস: চার থেকে ১৫ বছর পর্যন্ত কারাদণ্ড। যেকোনও ধরনের যৌন নিপীড়ন, অনুমতি ছাড়া জোর করে চুম্বনও এ ধরনের অপরাধ হিসেবে গণ্য করে শাস্তি দেওয়া হয়ে থাকে।

১১. রাশিয়া: বিশ্বের অন্যতম শক্তিধর রাষ্ট্র রাশিয়ায় ধর্ষণের শাস্তি ৩ থেকে ৩০ বছর পর্যন্ত কারাদণ্ড।

১২. যুক্তরাষ্ট্র: বিশ্বের শীর্ষ শক্তিধর রাষ্ট্র মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে দুই ধরনের আইন প্রচলিত রয়েছে। এগুলো হল অঙ্গরাজ্য আইন এবং ফেডারেল আইন। ফেডারেল আইনে সর্বোচ্চ শাস্তি যাবজ্জীবন কারাদণ্ড। তবে অঙ্গরাজ্য আইনে একেক অঙ্গরাজ্যে একেক রকম শাস্তি।

১৩. নরওয়ে: নরওয়েতে ধর্ষকের সাজা ৪ থেকে সর্বোচ্চ ১৫ বছরের কারাদণ্ড।

১৪. ইসরায়েল: ইসরায়েলে ধর্ষণের শাস্তি ৪ থেকে সর্বোচ্চ ১৬ বছরের কারাদণ্ড।

১৫. মঙ্গোলিয়া: ধর্ষিতার পরিবারের হাত দিয়ে ধর্ষককে মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করা হয়।