পাকিস্তানে ঐতিহাসিক গুরুদ্বারকে মসজিদে রূপান্তরিত করার চেষ্টা, তীব্র আপত্তি জানাল ভারত

Social Share

ইসলামাবাদ: ভালো নেই পাকিস্তানের সংখ্যালঘুরা। খুন, ধর্ষণ, অপহরণের পর ধর্মান্তরিত করা হচ্ছে সংখ্যালঘুদের। এবার পাকিস্তানের লাহোরের একটি প্রাচীন ঐতিহাসিক গুরুদ্বারকে মসজিদে পরিণত করার উদ্যোগ নিল পাকিস্তান। পাক হাইকমিশনের কাছে এই ঘটনার তীব্র প্রতিবাদ জানিয়েছে ভারত। সোমবার পাকিস্তান হাই কমিশনারের কাছে তীব্র প্রতিবাদ জানিয়েছে নয়াদিল্লি।

বিদেশমন্ত্রকের মুখপাত্র অনুরাগ শ্রীবাস্তব বলেন, পাকিস্তান হাইকমিশনে এই ঘটনার তীব্র প্রতিবাদ জানিয়েছে ভারত। লাহোরের একটি ঐতিহাসিক গুরুদ্বারকে মসজিদে রূপান্তরিত করার চেষ্টা করেছে৷ ঘটনার দিকে কড়া নজর রাখছে ভারত।

লাহোরের শহিদি আস্থান ভাই তারুজি গুরুদ্বারটি প্রাচীন এবং ঐতিহাসিক। ১৭৪৫ সালে ভাই তারু সিংয়ের চরম ত্যাগের জন্যই ওই গুরুদ্বারটি তৈরি হয়েছিল। অমৃতসরের বাসিন্দা ভাই তারু সিং মূলত কৃষিকাজ করতেন। সে সময় ভারতে মোগলরাজ। পাঞ্জাব অঞ্চলে মোগল তহসিলদারের অত্যাচার বাড়ায় শিখদের একটি দল বিদ্রোহ করার সিদ্ধান্ত নেয়। সে সময় মোগলরা বহু শিখকে ধর্মান্তরিত হতে বাধ্য করেছিল।

মোগলদের বিরুদ্ধে বিদ্রোহ ঘোষণা করেন তারু সিং। তবে তিনি ধরা পড়ে যান। প্রবল নির্যাতন সত্ত্বেও ধর্মান্তরিত হতে রাজি হননি তিনি। এমনকি তাঁর চুলও কেটে দেওয়া হয়েছিল। যা শিখদের কাছে পবিত্র বস্তু। ১৭৪৫ সালে তাঁর মৃত্যু হয়। ভাই তারুজিকে মনে রেখেই লাহোরে তৈরি হয়েছিল শহিদি আস্থান ভাই তারুজি গুরুদ্বারটি। শিখ সম্প্রদায়ের কাছে ওই গুরুদ্বারটি অত্যন্ত পবিত্র।

অকালি দলের মুখপাত্র মনজিন্দর সিং সিরসা পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের উদ্দেশে টুইট করে বলেছেন, চরমপন্থীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিন। পাকিস্তানের চরমপন্থীরা শহিদি আস্থান ধ্বংস করে ফেলতে চায়। যা মৌলিক মানবাধিকারের বিরোধী। কোনও ব্যক্তিকে ধর্মাচরণের স্বাধীনতা থেকে বঞ্চিত করা যায় না। শহিদি আস্থানকে বেআইনি দখলদারদের থেকে মুক্ত করতে ব্যবস্থা নিন। পাঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী অমরিন্দর সিংহও এই ঘটনার তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন।