পাকিস্তানকে বিনামূল্যে ১ কোটি ৭০ লাখ ডোজ কোভিশিল্ড টিকা দিচ্ছে ভারত

80
Social Share

ইতিমধ্যেই প্রতিবেশি সকল দেশকে করোনার ভ্যাকসিন কোভিশিল্ড পাঠিয়েছে ভারত। বাদ ছিল কেবল পাকিস্তান। কারণ হিসেবে বলা হয়েছিল, পাকিস্তানের সঙ্গে ভারতের যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন বালাকোট এয়ার স্ট্রাইকের পর থেকে। তবে এবার জানা গেল, পাকিস্তানকে ১ কোটি ৭০ লাখ ডোজ ভ্যাকসিন বিনামূল্যে দিচ্ছে ভারত। এই খবরে স্বভাবতই বেজায় খুশি হয়েছে ইমরান খান সরকার।

ভারতের পাঠানো টিকা পাকিস্তানে পৌঁছলেই সেখানে অচিরেই শুরু হবে টিকাদান কর্মসূচি। রবিবার ইমরান খানের মন্ত্রিসভার বিশেষ সহায়ক (স্বাস্থ্য) ডক্টর ফয়সাল সুলতান বলেন, ফেব্রুয়ারি মাসেই অ্যাস্ট্রাজেনেকার তৈরি ভ্যাকসিন পেতে চলেছে পাকিস্তান। মার্চ মাসের মধ্যে ৬০ লাখ ডোজ টিকা পাকিস্তানে পৌঁছে দেবে ভারত। বাকি টিকা পৌঁছবে জুন মাসের মধ্যে।

ফয়সাল সুলতান জানিয়েছেন, কোভ্যাক্স উদ্যোগের জেরেই পাকিস্তানে ভ্যাকসিন পাঠাচ্ছে ভারত। তবে শুধু ভারত নয়, পাকিস্তানকে বিনামূল্যে ৫ লাখ ডোজ করোনার ভ্যাকসিন দিচ্ছে চিন। ভ্যাকসিন নিতে চিনে বিশেষ বিমানও পাঠিয়েছে পাকিস্তান।

উল্লেখ্য, পাকিস্তানে প্রথমে কোভিশিল্ড টিকা সরবরাহের পরিকল্পনা করেছিল দিল্লি। কিন্তু টিকা কেনার পর্যাপ্ত টাকা না থাকায় এবং ভারতের সঙ্গে সম্পর্কের অবনতির কারণে বিড়ম্বনায় পড়ে ইমরান সরকার। উপায় না পেয়ে শেষে ভারতের বিভিন্ন রাজ্য সরকারের থেকে টিকা কেনার চেষ্টা করে ব্যর্থ হয় তারা।

তবে GAVI ও CEPI এবং WHO এর মধ্যে করা চুক্তি অনুযায়ী উন্নয়নশীল ও দরিদ্র দেশগুলিতে বিনামূল্যে টিকা পাবে। কোভ্যাক্স (Covax) উদ্যোগের জেরে বিশ্বের সকল দেশ যথাসময়ে পর্যাপ্ত পরিমাণে ভ্যাকসিন পাবে। তারই অংশ হিসেবে ভারতের টিকা পাচ্ছে পাকিস্তান।

পাকিস্তানের ২০ শতাংশ মানুষকে বিনামূল্যে করোনার টিকা পাবে। কিন্তু অবশিষ্ট ৮০ শতাংশ মানুষের জন্যে টিকার ব্যবস্থা কিভাবে করা হবে সে বিষয়ে এখনও স্পষ্ট নয় ইমরান খান সরকার। সূত্র: কোলকাতা ট্রিবিউন