‘পশ্চিমবঙ্গে বিজেপি সরকার ক্ষমতায় আসা কেবল সময়ের অপেক্ষা’

57
Social Share

পশ্চিমবঙ্গে ভোটের প্রচার শুরু করলেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী এবং তাতেই বাংলা বলে দর্শক মন জয়ের চেষ্টা চালালেন। সমবেত জনতাকে শুধু সম্বোধন নয়, এদিন বক্তব্যের শুরুর অনেকটা অংশই বাংলায় বললেন তিনি।

ভারতের বিভিন্ন প্রান্তে জনসভা করার নদীর অনেক স্থানীয় ভাষায় দর্শকদের সম্মোধন করেন। কিন্তু আজ উনি অনেকক্ষণ বাংলায় কথা বললেন, যা পূর্ব মেদিনীপুর হলদিয়া দর্শকদের মন জয় করে।

এদিন মোদির সভার দিকে নজর ছিল সবার। কারণ, আসন্ন বিধানসভা নির্বাচনকে সামনে রেখে এটাই ছিল তাঁর প্রথম জনসভা। সভামঞ্চে উঠেই মোদি বলেন, ‘আমার প্রিয় মা বোন ভাই বন্ধুরা, মেদিনীপুরের এই পবিত্র মাটিতে আসতে পেরে আমি ধন্য, নিজেকে গর্বিত মনে করছি।’

এদিন তাঁর বক্তব্যে উঠে আসে বাংলার মনীষীদের কথা। তিনি উল্লেখ করেন মেদিনীপুরের শহিদ মাতঙ্গিনী, বিপ্লবী ক্ষুদিরাম বসুর নাম। মোদি বলেন, দেশকে গর্বিত করেছেন এই মেদিনীপুরের বীর সন্তানরা। তাঁদের রক্তে রক্তাক্ত এই মাটি পূণ্যভূমি। তাম্রলিপ্ত জাতীয় সরকার তৈরি হয়েছিল এই মেদিনীপুরের মাটিতে, বলেন মোদি।

এই মাটির বীর সন্তান বিদ্যাসাগর মহাশয় বাংলাকে বর্ণপরিচয় উপহার দিয়েছেন বলে উল্লেখ করেন মোদি।

প্রায় পঞ্চাশ মিনিটের ভাষনে তিনি বারবার বাংলা ভাষা ব্যবহার করেন এবং তীব্র ভাষায় আক্রমণ করেন রাজ্যের মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সরকারকে।

তিনি আরো বলেন, পশ্চিমবঙ্গে বিজেপি সরকার ক্ষমতায় আসা কেবল সময়ের অপেক্ষা।

মোদির বক্তব্য তীব্র প্রতিবাদ জানিয়েছে তৃণমূল। “বাংলার সংস্কৃতি জানেন না উনি। টেলিপ্রমন্টার দেখে দেখে বাংলা বলার মানে বাংলাকে ভালোবাসা নয়,” মন্তব্য করেছেন তৃণমূল নেতা এবং বর্ষিয়ান সাংসদ সৌগত রায়।