পর্দায় একসঙ্গে উড়বেন হৃতিক-দীপিকা, আসছে ফাইটার

46
Social Share

বিনোদন ডেস্ক: স্বপ্ন সত্যি হল! বলেই ফেললেন দীপিকা পাড়ুকোন। অনলাইন কথাবার্তায় গত পাঁচ দিন ধরেই ছোট্ট ছোট্ট ইঙ্গিত ছুড়ছিলেন দুই তারকা। প্রথমে হৃতিক রোশন। তার পাল্টা দীপিকা পাড়ুকোন। বেশ বোঝা যাচ্ছিল, কিছু একটা ঘটছে বলিউডের গ্রিক গড আর মিসেস রণবীর সিংহের মধ্যে। কিন্তু, সেটা যে কী, কিছুতেই বুঝে উঠতে পারছিলেন না অনুরাগীরা।

অবশেষে কথাটা পেড়ে ফেললেন হৃতিকই। সমাজমাধ্যমে রাখ ঢাক না করেই জানিয়ে দিলেন, একসঙ্গে ছবি করছেন তিনি আর দীপিকা। ছবির নাম ফাইটার। মারফ্লেক্স ভিশনের প্রযোজনায়, পরিচালক সিদ্ধার্থ আনন্দের ছবি।

আর এই ঘোষণার কিছুক্ষণের মধ্যেই হৃত্বিকের ভিডিয়ো শেয়ার করে দীপিকার ওই টুইট।

আসলে বছর দুই আগেই ভাইরাল হয়েছিল হৃতিক রোশনের হাত থেকে দীপিকার চকোলেট কেক খাওয়ার দৃশ্য। চকলেট কেকের টুকরো বড্ড যত্নে দীপিকার মুখে তুলে দিচ্ছিলেন হৃতিক। আর দীপিকাকে দেখে মনে হচ্ছিলেন ফ্যান গার্ল মোমেন্টের প্রতি মুহূর্ত তারিয়ে তারিয়ে উপভোগ করছেন তিনি।

ক্যামারা বন্দি হৃতিক-দীপিকার ওই রসায়ন তখনই ঢেউ তুলেছিল অনুরাগী মনে। হৃতিক-দীপিকাকে জুটি করে ছবি বানানোর দাবিও জোরালো হয়েছিল বেশ। দীপিকার মনেও নিশ্চয়ই সুপ্ত ইচ্ছে ছিল।

তা নাহলে রবিবার হৃতিক দীপিকা জুটির প্রথম ভিডিয়ো প্রকাশ্যে আসতেই তিনি স্বপ্নপূরণের কথা লিখবেন কেন!

হৃতিকের আগের ছবি ব্যাং ব্যাং আর ওয়ার-এর পরিচালকও ছিলেন সিদ্ধার্থ। মারফ্লেক্স সিদ্ধার্থেরই প্রযোজনা সংস্থা। ফাইটার সেই সংস্থার প্রথম ছবি। ইনস্টাগ্রামে সে কথা জানিয়ে, হৃতিক লিখেছেন, সিদ্ধার্থের পরিচালক থেকে প্রযোজক হয়ে ওঠার এই সফরের সাক্ষী তিনি নিজেই। আর তাই ফাইটারের অংশ হতে পেরে তিনি উত্তেজিত।

টুইটারে ছবির ৩২ সেকেন্ডের একটি ভিডিয়ো শেয়ার করে হৃতিক লিখেছেন, ‘অসাধারণ দীপিকা পাড়ুকোনের সঙ্গে আমার প্রথম উড়ানের জন্য আমি প্রস্তুত। এখন শুধু সিদ্ধার্থ আনন্দের জয়রাইডের অপেক্ষা’।

ভিডিয়োতে অবশ্য অভিনেতাদের দেখা যাচ্ছে না। শুধুই ছবির নাম। আর পরিচালক প্রযোজকের নাম। তবে নেপথ্য কণ্ঠ আর বিবরণে স্পষ্ট, ভারতীয় ফাইটার জেট ছবির মূল বিষয়বস্তু। আর খুব সম্ভবত হৃতিক আর দীপিকা দু’জনেই অভিনয় করতে চলেছেন যুদ্ধ বিমানচালকের ভূমিকায়। হৃতিকের ভয়েস ওভারেও শোনা যায়, ‘‘সেরা প্রেমিকা দেশ, আর সেরা কাফন জাতীয় পতাকা।’’

আর কি চাই, দেশপ্রেম আর হৃতিকের ডাবল প্যাক কখনও বক্সঅফিসে সে ভাবে ব্যর্থ হয়নি। তাই ছবির খবর সামনে আসতেই আশা জেগেছে অনুরাগীদের মনে।

ছবির মুক্তি অবশ্য ২০২২ সালের ৩০ সেপ্টেম্বর। আশা করা যায় ততদিনে বিদায় নেবে অতিমারি। হলে গিয়ে পর্দায় দীপিকা হৃতিকের জুটি দেখতে পারবেন দর্শক। তবে তার আগে ভক্তদের ছবি নিয়ে জল্পনার অনেকটা সময় দিলেন হৃতিক।

রবিবার হৃতিকের জন্মদিনের সকালেই টুইট করে ছোট্ট ইঙ্গিত দিয়েছিলেন দীপিকা। অভিনেতার কাছে জানতে চেয়েছিলেন, ‘তাহলে তো জোড়া সেলিব্রেশন হচ্ছে না কি’! মুখ বন্ধ করার ইমোজি দিয়ে সঙ্গে সঙ্গে দীপিকাকে চুপ করিয়ে দিয়েছিলেন বলিউডের গ্রিক গড। শেষে খবরটা ভাঙলেন নিজেই।