পবিত্র ইসলাম ধর্মের নামে বিশৃংখলা সৃষ্টিকারীদের দৃষ্টান্তমুলক শাস্তির দাবী পেশাজীবী সমন্বয় পরিষদের

240
Social Share

গতকাল সোমবার পেশাজীবী সমন্বয় পরিষদের নেতৃবৃন্দ এক বিবৃতিতে বলেন, স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীতে স্বাধীনতা বিরোধী অপশক্তি ইসলাম ধর্মের নামে যে বিশৃংঙ্খলা সৃষ্টি করেছে, অগ্নিসংযোগ, ভাংচুরের তাণ্ডপলীলা চালিয়েছে তা স্বাধীন সার্বভৌম বাংলাদেশের উপর একটি বড় আঘাত।এই আঘাত মানবিক মূল্যবোধের বিরুদ্ধে, সুস্থ চিন্তার বিরুদ্ধে, সভ্যতার বিরুদ্ধে।
নেতৃবৃন্দ আরো বলেন, স্বাধীনতাকে অবমাননা করা মানে রাষ্ট্রকেই অবমাননা করা।সুতারাং যারা স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীতে অপতৎপরতা চালিয়েছে তারা রাষ্ট্রকেই অবমাননা করেছে,সংবিধানকে অবমাননা করেছে ত্রিশ লাখ শহীদ ও দুই লাখ মা-বোনের সভ্রমের অমর্যাদা করেছে।
তারা বলেন, এ অবমাননা কোনভাবেই সহ্য করা যায় না, এটি ক্ষমার অযোগ্য অপরাধ।শান্তির ধর্ম পবিত্র ইসলামের নামে স্বাধীনতা বিরোধীদের এহেন কর্মকান্ডের তীব্র নিন্দা এবং এর সাথে জরিতদের দৃষ্টান্তমুলক শাস্তির দাবী করেছে পেশাজীবী সমন্বয় পরিষদ।
পেশাজীবী সমন্বয় পরিষদের নেতৃবৃন্দ বাংলাদেশের স্বাধীনতা ও মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের পেশাজীবীসহ সকলকে রাষ্ট্র ও সংবিধান বিরোধী সকল অপতৎপরতার বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ হয়ে প্রতিরোধ গড়ে তোলার আহবান জানিয়েছেন।
বিবৃতিদাতারা হলেন, পেশাজীবী সমন্বয় পরিষদের সভাপতি বিচারপতি এ এফ এম মেজবাহ উদ্দিন, মহাসচিব বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য অধ্যাপক ডা: কামরুল হাসান খান, প্রেসিডিয়াম সদস্য ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো: আখতারুজ্জামান, অ্যাটনি জেনারেল এ্যাডভোকেট এ এম আমিন উদ্দিন, অ্যাডভোকেট ইউসুফ হোসেন হুমায়ুন, বাংলাদেশ মেডিকেল অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি ডা: মোস্তফা জালাল মহিউদ্দিন, আইইবির সাবেক সভাপতি প্রকৌশলী মাে: আবদুর সবুর, শিক্ষক নেত্রী অধ্যাপক মাহমুদা বেগম, বিএমএর মহাসচিব ডা এহতেশামুল হক চৌধুরী, কৃষিবিদ ইষ্টিটিউশন বাংলাদেশের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি অধ্যাপক ড. মো: শহীদুর রশিদ ভুইয়া, মহাসচিব কৃষিবিদ খায়রুল আলম প্রিন্স, ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি সাংবাদিক মোল্লা জালাল, ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব সাংবাদিক আব্দুল মজিদ, বঙ্গহবন্ধু প্রকৌশল পরিষদের সভাপতি অধ্যাপক প্রকৌশলী ড. মো: হাবিবুর রহমান, মহাসচিব প্রকৌশলী মো: নুরুজ্জামান, ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি সাংবাদিক কুদ্দুস আফ্রাদ, অর্থনীতিবিদ অধ্যাপক হান্নানা বেগম, বাংলাদেশ কলেজ বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির সভাপতি অধ্যাপক ড. নুর মোহাম্মদ তালুকদার, বাংলাদেশ কলেজ শিক্ষক সমিতির সভাপতি অধ্যাপক আসাদুল হক, মহাসচিব অধ্যাপক মো: জাহাঙ্গীর, প্রকৌশলী মঞ্জুরুল ইসলাম মঞ্জু, অধ্যাপক ড. মো. কামরুজ্জামান, অধ্যাপক মিজানুর রহমান, সাংবাদিক জয়ন্ত আচার্য প্রমুখ।