নৌদুর্ঘটনা রোধে কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি কাদেরের

28
Social Share

মাদারীপুরের শিবচরের পদ্মা নদীতে বালুবোঝাই বাল্কহেড ও স্পিডবোটের সংঘর্ষে ২৬ জন নিহতের ঘটনায় দোষীদের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি জানিয়েছেন জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান ও বিরোধীদলীয় উপনেতা জি এম কাদের।

একই সঙ্গে দেশে নৌদুর্ঘটনা রোধে কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহণ এবং নিহতদের পরিবারকে যৌক্তিক ক্ষতিপূরণ দেওয়ারও দাবি জানিয়েছেন তিনি।

আজ সোমবার (৩ মে) শোকবার্তায় এসব দাবি জানান জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান। শোকবার্তায় দুর্ঘটনায় ব্যাপক হতাহতের ঘটনায় গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেন বিরোধীদলীয় উপনেতা। তিনি নিহতদের বিদেহী আত্মার মাগফিরাত কামনা ও শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানান।

জি এম কাদের বলেন, ‘মর্মান্তিক এমন দুর্ঘটনা মেনে নেওয়া যায় না। নৌদুর্ঘটনা রোধে কার্যকর ব্যবস্থা নিতে হবে। তদন্তসাপেক্ষে দোষীদের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নিতে সংশ্লিষ্টদের প্রতি আহ্বান জানাই। নিহতদের পরিবারকে যৌক্তিক ক্ষতিপূরণ দেওয়া হোক’।

আজ সোমবার (৩ মে) ভোর ৬টার দিকে মাদারীপুরের শিবচরে বাংলাবাজার ঘাট এলাকায় বালুবোঝাই বাল্কহেড ও স্পিডবোটের মধ্যে এ সংঘর্ষের ঘটে। দুর্ঘটনায় এ পর্যন্ত ২৬ জনের মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়েছে।

শিবচরের বাংলাবাজার ফেরিঘাটের ট্রাফিক পরিদর্শক আশিকুর রহমান জানান, মুন্সিগঞ্জের শিমুলিয়া থেকে ৩০ জন যাত্রী নিয়ে একটি স্পিডবোট বাংলাবাজার ফেরিঘাটের দিকে যাচ্ছিল। স্পিডবোটটি বাংলাবাজার ফেরিঘাটের পুরাতন কাঁঠালবাড়ি ঘাটের কাছাকাছি আসার পর বালুবোঝাই বাল্কহেডের সঙ্গে সংঘর্ষ হয়। সংঘর্ষে স্পিডবোটটি উল্টে যায়। এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত ২৬ জনের মরদেহ এবং পাঁচজনকে জীবিত উদ্ধার করা হয়েছে। উদ্ধারকাজ চলছে’।

করোনা সংক্রমণের বিস্তার রোধে সরকারঘোষিত ‘লকডাউনে’ গণপরিবহন বন্ধ থাকার পাশপাশি নৌরুটে লঞ্চ ও স্পিডবোট চলাচল বন্ধ রয়েছে। তবে কিছু অসাধু স্পিডবোটচালক অবৈধভাবে যাত্রী পারাপার করে আসছেন।