নিষিদ্ধ হলেন ছোট পোশাক পরে যুবকের চড় খাওয়া সেই অভিনেত্রী

59
Social Share

সম্প্রতি বলিউড অভিনেত্রী গওহর খানকে নিয়ে একটি ভিডিও ভাইরাল হয় নেট দুনিয়ায়। এই ভিডিওতে তাকে হেনস্থা ও অপমানের শিকার হতে দেখা যায়।

জানা গেছে, ঘটনাটি ২০১৪ সালের। তবে এটি নতুন করে ফের ভাইরাল হয়। এতে দেখা যায়, একটি টেলিভিশন শো-য়ের শ্যুটিং চলছিল ফিল্মসিটিতে। গওহর খান ছিলেন সেটে। আচমকা এক যুবক দর্শকাসন থেকে মঞ্চে উঠে এসে চড় মারেন অভিনেত্রীর গালে। সঙ্গে সঙ্গে নিরাপত্তারক্ষীরা তাকে আটক করেন। ২৪ বছরের যুবক মুহাম্মদ আকিল মালিককে নিয়ে যাওয়া হয় থানায়। আকিলের যুক্তি ছিল, গওহর খানের পোশাক আপত্তিকর। তার উপরে তিনি যেভাবে নাচছিলেন, সেটা নিয়েও অসুবিধা হয় বলে দাবি তার। যুবক এমনকি অভিনেত্রীর গায়েও হাত দিয়েছিলেন বলে অভিযোগ উঠেছিল।

তবে এবার সম্পূর্ণ ভিন্ন কারণে নিষিদ্ধ হলেন বলিউডের এই অভিনেত্রী। করোনা বিধি লঙ্ঘনের দায়ে তাকে দুই মাসের জন্য নিষিদ্ধ করেছে ফেডারেশন অব ওয়েস্টার্ন ইন্ডিয়া সিনেমা এমপ্লইজ (এফডব্লিউআইই)।

এক বিজ্ঞপ্তিতে সংগঠনটি জানিয়েছে, করোনা আক্রান্ত হওয়ার পরও শুটিংয়ে অংশ নিয়ে দায়িত্বজ্ঞানহীনতার পরিচয় দিয়েছেন গওহর খান। তার সঙ্গে শুটিং করা ক্রু সদস্যদের জীবন নিয়ে ছিনিমিনি খেলেছেন। বিষয়টি একেবারেই সহ্য করা হবে না। পরবর্তী নির্দেশ না পাওয়া পর্যন্ত ফেডারেশনের সমস্ত সদস্যদের গওহর খানের সঙ্গে কোনও কাজ না করার নির্দেশ দেওয়া হল।

এদিকে গওহর খানের দাবি, করোনা রিপোর্ট নেগেটিভ আসার পরই শুটিংয়ে অংশ নিয়েছেন তিনি। নিজের ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্টে এ অভিনেত্রী লিখেছেন, সত্যের জয় সবসময় হয়।

এর আগে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার পরও শুটিংয়ে অংশ নেওয়ার অভিযোগে এ অভিনেত্রীর বিরুদ্ধে বৃহন্মুম্বাই পৌরসভার পক্ষ থেকে মামলা দায়ের করে বিএমসি।

সোমবার সকালে এক টুইটে বিএমএস জানিয়েছে, শহরের নিরাপত্তার জন্য কোনওরকম আপোষ নয়। এক বলিউড অভিনেত্রীর বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে। কারণ, তিনি করোনায় আক্রান্ত হওয়ার পরও নিয়ম মেনে চলেননি। নিয়ম সবার জন্যই সমান। সমস্ত নিয়ম মেনে এই ভাইরাসের বিরুদ্ধে একজোট হয়ে লড়ার অনুরোধ করছি।

অন্যদিকে, ওসিয়াড়া পুলিশের ডিসিপি এস চৈতন্য জানান, ভারতীয় দণ্ডবিধির ১৮৮, ২৬৯, ২৭০ এবং জাতীয় বিপর্যয় মোকাবিলা আইনের ৫১ বি ধারা অনুযায়ী গওহরের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছে বিএমসি। সূত্র: গাল্ফ নিউজ