নির্বাচনে হেরে নিজেকে যেভাবে সান্ত্বনা দিলেন শ্রাবন্তী

70
Social Share

নির্বাচনের ফলের পরে এই প্রথম নিজের ছবি পোস্ট করলেন অভিনেত্রী শ্রাবন্তী চট্টোপাধ্যায়। গাড়িতে বসে, চোখে রোদ চশমা পরে বসে রয়েছেন। ছবিতে লিখলেন, “পথ চলার মাঝে ব্যর্থতা আসবেই”। কোন ব্যর্থতার কথা বলতে চাইলেন অভিনেত্রী?

বিধানসভা নির্বাচনের সময় বিজেপি-তে যোগ দেন শ্রাবন্তী। পেয়ে যান নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার টিকিট। টলিউডে তার জনপ্রিয়তা জেরে নির্বাচনে জিতে যাবেন বলে মনে করেছিলেন তার অনুরাগীদের একাংশ। কিন্তু শেষমেশ বেহালা পশ্চিম কেন্দ্রে তৃণমূল প্রার্থী পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের কাছে হেরে যান তিনি। এখানেই শেষ নয়। হারের পর ‘অসম্মান’ এসে জোটে তার কপালে। কখনও বিরোধী দল, কখনও বা নিজের দলের কর্মীরা তাকে ঘিরে নানা মন্তব্য করেন।

ভোটের ফল প্রকাশ পাওয়ার দু’দিন পরে বিজেপি’র প্রবীণ নেতা তথাগত রায় তোপ দাগেন। শ্রাবন্তী, তনুশ্রী চক্রবর্তী এবং পায়েল সরকারকে কেন টিকিট দেওয়া হয়েছে, তা নিয়ে প্রশ্ন তোলেন তিনি। কিন্তু সেই প্রশ্নের মধ্যে ‘অপমান’ করার চেষ্টাও চোখে পড়ে অনেকের। দোলের দিন একটি অনুষ্ঠানে গিয়ে তৃণমূল নেতা মদন মিত্রের সঙ্গে ছবি তোলা নিয়েও কটূক্তি করেন তথাগত। টুইটারে তিনি লিখেছিলেন, “নগরীর নটীরা নির্বাচনের টাকা নিয়ে কেলি করে বেড়িয়েছেন আর মদন মিত্রের সঙ্গে নৌকাবিলাসে গিয়ে সেলফি তুলেছেন (এবং হেরে ভূত হয়েছেন) তাদেরকে টিকিট দিয়েছিল কে?”

পাল্টা প্রমাণ চেয়েছিলেন শ্রাবন্তী। বলেছিলেন,“উনি বলেছেন, আমরা ভোটের টাকায় বেড়িয়েছি। কেলি করেছি। এই মন্তব্যের কোনও প্রমাণ কি তার কাছে আছে?”

সেই সমস্ত অপমানের আরও এক জবাব কি দিলেন বুধবার? ব্যর্থতা নিয়ে কথা বললেন কেন অভিনেত্রী? নাকি রোশন সিংহের সঙ্গে ব্যর্থ দাম্পত্য জীবন নিয়ে কিছু বলতে চাইলেন তিনি? নাকি এটি ছিল শুধুই সান্ত্বনা?