নিরাপত্তার জন্য কাঁটাতারের বেড়া নির্মাণ করা হবে রোহিঙ্গা ক্যাম্পে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

রাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেছেন, ‘রোহিঙ্গাদের নিরাপত্তা ও তাদের নজরদারির আওতায় আনার জন্য তিনটি বৃহৎ রোহিঙ্গা ক্যাম্পের চারদিকে কাঁটাতারের বেড়া নির্মাণ করবে সরকার।’ বৃহস্পতিবার নিজ মন্ত্রণালয়ে তিন দেশের দূতের সঙ্গে বৈঠক শেষে তিনি সাংবাদিকদের এ কথা বলেন। বাংলাদেশে নিযুক্ত যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূত আর্ল আর মিলার, কানাডীয় হাইকমিশনার বেনোইট প্রিফন্টেইন এবং ইউরোপীয় ইউনিয়ন (ইইউ) প্রতিনিধি স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন।

তিনি বলেন, ‘দূতগণ রোহিঙ্গা ক্যাম্পগুলোর সার্বিক অবস্থা সম্পর্কে জানতে চান এবং এ সময় তিনি তাদের জানান ২০১৭ সাল নাগাদ বাংলাদেশে ১১ লক্ষাধিক রোহিঙ্গার আশ্রয় গ্রহণের প্রেক্ষিতে জাতীয় নিরাপত্তার বিষয় বিবেচনায় নিয়ে সরকার কিছু পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে।’

তিনি আরও বলেন, ‘জানা গেছে সম্প্রতি দুষ্কৃতকারীরা রোহিঙ্গাদের সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করছে এবং কতিপয় রোহিঙ্গাকে ইয়াবা ও অবৈধ অস্ত্র ব্যবসার মতো কাজে জড়িয়ে পড়তে দেখা গেছে। আমার নিরাপত্তা কর্মীরা রোহিঙ্গাদের কাছ থেকে অস্ত্র উদ্ধার করেছে। এছাড়া তারা (রোহিঙ্গা) আমাদের নিরাপত্তা জওয়ান ও আওয়ামী লীগ নেতাদের হত্যা করেছে। অতএব রোহিঙ্গাদের ক্যাম্পগুলোর চারদিকে কাঁটাতারের বেড়া নির্মাণ করা হবে এবং সেখানে দুই ব্যাটালিয়ন আর্মড পুলিশ মোতায়েন করা হবে।’ তিনি জানান, অনিবার্য কারণে রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন বিলম্বিত হচ্ছে এবং প্রত্যাবাসন প্রক্রিয়ায় আরও সময় লাগতে পারে। যুক্তরাষ্ট্র, কানাডা ও ইউরোপীয় ইউনিয়ন রোহিঙ্গাদের প্রত্যাবাসনের ব্যাপারে আন্তরিক।

বেসরকারি সংস্থাসমূহের (এনজিও) প্রতিনিধিদের জন্য ভিসা ইস্যুর বিষয়ে মন্ত্রী বলেন, সরকার এনজিও কর্মকর্তাদের জন্য ভিসা ইস্যুর ক্ষেত্রে আরও সতর্কতা অবলম্বন করবে।